করোনা মুক্ত বিশ্ব গড়তে সবার জন্য টিকা নিশ্চিত করুন (ভিডিও)

আগের সংবাদ

বিশ্বকাপে ম্যাচসেরা চার টাইগার

পরের সংবাদ

উজবেকিস্তানে সাবিনাদের আরেক ম্যাচ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ , ১০:৩৩ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২১ , ১০:৩৩ অপরাহ্ণ

নারী এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বে খেলতে উজবেকিস্তানে গেছে বাংলাদেশ নারী ফুটবল দল। বাছাইপর্বে জর্ডান ও ইরানের বিপক্ষে টানা দুটি ম্যাচ হেরে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। দুটি ম্যাচেই বাংলাদেশের মেয়েরা পাঁচটি করে গোল হজম করে। ফলে চরম হতাশা নিয়ে দেশে ফিরে আসার কথা ছিল সাবিনাদের। তবে উজবেকিস্তান থেকে একটি ভালো খবর নিয়ে আসার একটি সুযোগ পেয়েছেন তারা।

বাংলাদেশ নারী দলকে হংকংয়ের ফুটবল ফেডারেশন একটি প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য প্রস্তাব দিয়েছে। সে প্রস্তাবটি গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ। রবিবার হবে দুই দলের একমাত্র এ প্রীতি ম্যাচটি। যদি হংকংয়ের বিপক্ষে ভালো কিছু করতে পারে বাংলার মেয়েরা তাহলে সেটিই হবে একটি বড় প্রাপ্তি।

উজবেকিস্তান থেকে জাতীয় নারী ফুটবল দলের প্রধান কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন জানিয়েছেন তারা হংকংয়ের বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলবেন। সেটি ২৬ সেপ্টেম্বর। মানে রবিবার। বাংলাদেশ সময় বিকাল ৪টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

এই ম্যাচের জন্য বাংলাদেশ দল প্রস্তুতিও শুরু করেছে। গত দুইদিন হোটেলে জিম সেশন করেছে সাবিনা-মৌসুমীরা। ছোটন জানিয়েছেন তারা আগামীকাল শনিবার মাঠে অনুশীলন করবেন এ ম্যাচটির জন্য।

এদিকে এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে খেলতে যাওয়ার আগে কোচ বলেছিলেন তারা ভালো কিছু করবেন। কিন্তু ভালো কিছু হয়নি। উল্টো দুটি ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছে বড় ব্যবধানে। জর্ডান ও ইরানের বিপক্ষে পাঁচটি পাঁচটি করে মোট দশটি গোল হজম করেছে বাংলাদেশ। কিন্তু একটি গোলও শোধ করতে পারেনি তারা। এর কারণ ব্যাখ্যা করেন গোলাম রব্বানি ছোটন।

এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের দুই ম্যাচে ১০ গোল হজম প্রসঙ্গে কোচ বলেন, ‘আসলে কিছু ছোট ছোট ভুলের কারণে দুই ম্যাচেই আমরা বেশি গোল খেয়েছি। গোল কম হলে ভালো হতো এবং সেটা হতে পারত।’

‘অভিজ্ঞতায় আমাদের মেয়েরা প্রতিপক্ষের চেয়ে পিছিয়েছিল। আমাদের দলের গড় বয়স ১৮ থেকে ১৯ বছরের মধ্যে। একমাত্র সাবিনাই সিনিয়র। যে কারণে আমাদের মেয়েরা মাঠে কিছু ভুল করে বসেছে, এটাই ছিল আমাদের সবচেয়ে বড় সমস্যা। সিনিয়র লেভেলে খেলতে গেলে এ সমস্যাগুলো হয়ে থাকে আমাদের।’

এদিকে এ ম্যাচটিকে সামনে রেখে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় সকাল ১১টা ৩০ মিনিট থেকে দুই ভাগে ভাগ হয়ে নারী দলের সদস্যরা জিমে সময় কাটান। সেখানে তারা অ্যাক্টিভেশন, স্ট্রেচিং ও ফোম রোল অনুশীলন করেন। এরপর আধা ঘণ্টা তারা জিমে ঘাম ঝরান।

এই ম্যাচটিকে সামনে রেখে শনিবার অনুশীলন করবেন বাংলাদেশের নারী ফুটবলাররা। গতকালের মতো আজও ঠিক একইভাবে সাজানো হয়েছে বাংলাদেশের মেয়েদের অনুশীলনের পরিকল্পনা।

এদিকে উজবেকিস্তানে যাওয়ার আগে বাংলাদেশ নেপালে যায় দুটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে। নেপালের মেয়েদের বিপক্ষেও কোনো জয়ের দেখা পায়নি বাংলাদেশ। প্রথমটিতে তারা হারে ২-১ গোলের ব্যবধানে। দ্বিতীয় ম্যাচটিতে গোল শূন্য ড্র করে। নেপালেও প্রত্যাশামতো ফলাফল না আসায় তখন বলা হয়েছিল এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে হয়ত তারা ভালো করবেন। কিন্তু এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে উল্টো আরো ভরাডুবি হয়। এখন দেখার বিষয় বাংলাদেশ উজবেকিস্তান থেকে ভালো একটি খবর নিয়ে আসতে পারে কিনা।

রি-এসএস/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়