নিরপেক্ষ ইউপি নির্বাচনের দাবি ওয়ার্কার্স পার্টির

আগের সংবাদ

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন ডা. প্রাণ গোপাল

পরের সংবাদ

পরিবহন জগতে রাঙ্গা সবচেয়ে বড় চাঁদাবাজ : কাদের মির্জা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১ , ৬:০৯ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১ , ৬:১০ অপরাহ্ণ

জাতীয় পার্টির চিফ হুইপ সংসদ সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গাকে পরিবহন জগতের সবচেয়ে বড় চাঁদাবাজ বলে মন্তব্য করেছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বসুরহাট পৌরসভা মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘এ রাঙ্গা সেই রাঙ্গা, যে রাঙ্গাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৌরসভার মেয়র থেকে এনে মন্ত্রী বানিয়েছেন। আর আজকে সেই রাঙ্গা প্রধানমন্ত্রীকে বলে স্বৈরাচার। এছাড়া সে বলে শহীদ নূর হোসেন নাকি মাদকাসক্ত-ইয়াবাখোর।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনারাই বলেন নূর হোসেনের আমলে কি ইয়াবা ছিল? রাঙ্গা সাহেব, পরিবহন সেক্টরের খবর কি? এই পরিবহন জগত ধুয়ে-মুছে খেয়ে ফেলেছেন। আজকে বড় বড় কথা বলেন। আর আমাকে বলেন আমি সারাদেশে বিতর্কিত। শরম যদি লাগে গো ঘোমটা দিয়ে চল গো।’

এ সময় কাদের মীর্জা এক সপ্তাহের আল্টিমেটাম দিয়ে বলেন, ‘আগামী ৭ দিনের মধ্যে কোম্পানীগঞ্জের সকল ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি জানাচ্ছি। অন্যায়ভাবে যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। কোম্পানীগঞ্জে দ্রুত গ্যাস সংযোগ ও চর এলাহীর ভাঙ্গনরোধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দাবি জানাচ্ছি। যদি ৭ দিনের মধ্যে এসব দাবি পূরণ করা না হয় তাহলে আগামী শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) থেকে তীব্র আন্দোলন হবে।

কোম্পানীগঞ্জে শোন এরেস্টের বানিজ্য চলছে উল্লেখ করে কাদের মির্জা বলেন, ‘আমার নেতাদের গ্রেফতার করে টাকার বিনিময়ে সাংবাদিক মুজাক্কির ও সিএনজি চালক আলাউদ্দিন হত্যা মামলায় শোন এরেস্ট দেখানো হচ্ছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (পিবিআই) আমার কর্মীদের কাছে থেকে জন প্রতি সাড়ে তিন লাখ টাকা করে চেয়েছেন। সাড়ে তিন লাখ টাকা না দেওয়া আমার কর্মীদের শোন এরেস্ট দেখানো হয়েছে। কিন্তু প্রতিপক্ষের কাউকে শোন এরেস্ট দেখানো হয় নাই।

কাদের মির্জা আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনার সকল অর্জন দুর্নীতিবাজ ও প্রশাসন শেষ করে দিচ্ছে। এটা আমরা মেনে নিতে পারিনা। আওয়ামী লীগের কাছে মানুষ অনেক কিছু আশা করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অনুরোধ করবো তিনি যেন মানুষের হৃদয়ের ভাষা বোঝার চেষ্টা করেন তাহলে দেশের উন্নতি হবে।’

জয় বাংলা ও জয় বঙ্গবন্ধু জাতীয় শ্লোগানের দাবি জানিয়ে কাদের মির্জা বলেন, ‘বাংলাদেশে জয় বাংলা ও জয় বঙ্গবন্ধু শ্লোগান দেওয়ায় অনেকে ভিন্নভাবে দেখেন। জয় বাংলা হলো জাতীয় শ্লোগান। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানাচ্ছি জয় বাংলা ও জয় বঙ্গবন্ধুকে জাতীয় শ্লোগান করা হোক।’

অনুষ্ঠানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ইস্কান্দার হায়দার চৌধুরী বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইউনুছ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবু নাছের, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আজিজুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি জামাল উদ্দিন, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আজিজ, উপজেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা জামাল উদ্দিন ও পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল খায়েরসহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়