জীবন বাঁচাতে পাকিস্তানে আফগান নারী ফুটবলাররা

আগের সংবাদ

বিএনপি নির্বাচন কমিশন নিয়ে চিন্তা করছে না: মির্জা ফখরুল

পরের সংবাদ

সৌদির উদ্দেশে দেশ ছাড়লেন সাত টাইগার

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১ , ১০:১৯ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১ , ১০:১৯ অপরাহ্ণ

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। এর ফলে লম্বা একটা সময় ব্যস্ত কাটিয়েছেন ক্রিকেটাররা। এই সিরিজ দুটির পর এখন ক্রিকেটারদের ছুটি দেয়া হয়েছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে যেন তারা ভালো সময় কাটাতে পারেন, এজন্য এ ছুটি দেয়া হয়েছে বিসিবির পক্ষ থেকে। আর এই ছুটি কাজে লাগিয়ে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়া পাঁচজন মোট সাত ক্রিকেটার সৌদি আরব গেছেন ওমরাহ পালন করতে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা ৩০ মিনিটের ফ্লাইটে সৌদি আরবের উদ্দেশে দেশ ছাড়েন তারা।

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ওমানে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপ দলের জন্য মোট ১৮ জন ক্রিকেটারকে দলে ডেকেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এর মধ্যে বিশ্বকাপ দলে থাকা নাইম শেখ, আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও তাসকিন আহমেদ ওমরাহ পালন করতে গেলেন। এছাড়া আরো দুই ক্রিকেটার তাদের সফরসঙ্গী হচ্ছেন। তারা হলেন তাইজুল ইসলাম ও জাকির হাসান। তাইজুল ইসলাম হলেন একজন টেস্ট স্পেশালিস্ট বোলার। ফলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জায়গা হয়নি তার।

বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়া পাঁচ ক্রিকেটারের ওমরাহ পালন করতে যাওয়ার বিষয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান জানিয়েছেন, ওমরাহ শেষ করে ২১ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরে আসার কথা রয়েছে এই সাত ক্রিকেটারের। দেশে ফেরার পর কয়েকদিন পরিবার-পরিজনের সঙ্গে কাটাতে পারবেন তারা।

ওমারাহ করে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়া ক্রিকেটাররা জাতীয় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। বাংলাদেশ বিশ্বকাপে তাদের মিশন শুরু করবে আগামী ১৭ অক্টোবর। তবে জাতীয় দল ওমান চলে যাবে ৪ অক্টোবর। সেখানকার আবহাওয়ার সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নিতে আগেভাগেই চলে যাবেন রাসেল ডমিঙ্গোর শিষ্যরা। এরপর সেখানে করবেন কন্ডিশনিং ক্যাম্প।

২০১৬ সালের বিশ্বকাপের মতো ২০২১ সালের বিশ্বকাপেও বাংলাদেশকে খেলতে হচ্ছে বাছাইপর্ব। ১৭ অক্টোবর থেকে মূলত বাছাইপর্বে খেলতে নামবেন ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশ বাছাইপর্বে মোট তিনটি ম্যাচ খেলবে। ১৭ অক্টোবর প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। ১৯ অক্টোবর লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ওমানের। বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে পাপুয়া নিউগিনির বিপক্ষে। এই চারটি দেশ থেকে দুটি দেশ সুপার টুয়েলভে জায়গা করে নেবে।

বাছাইপর্বের বাঁধা বাংলাদেশ খুব সহজেই পার করে ফেলবে বলেই মনে করছে সবাই। কারণ বাংলাদেশের বিপক্ষে যারা বাছাইয়ে খেলবে, তারা সবাই শক্তি-সামর্থ্য সবদিক দিয়ে বাংলাদেশের চেয়ে পিছিয়ে আছে। যদিও ক্রিকেট হলো অনিশ্চয়তার খেলা। ফলে যে কোনো সময় যে কোনো কিছু হয়ে যেতে পারে। তাই তো বাংলাদেশ নিজেদের বেশ ভালোভাবেই প্রস্তুত করেছে। ফলে বাছাইপর্বের চিন্তা মাথায় রাখার পাশাপাশি বাংলাদেশ সুপার টুয়েলভের কথাও নিজেদের মাথায় রাখছে।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়