৬ বছর পর নভেম্বরে বাংলাদেশ সফরে আসছে পাকিস্তান

আগের সংবাদ

মাদক মামলায় পরী মনি আদালতে হাজিরা দিবেন বুধবার

পরের সংবাদ

টাইগার যুবাদের কাছে পাত্তাই পেল না আফগানরা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১ , ৬:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২১ , ৬:৩০ অপরাহ্ণ

পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ২ ম্যাচ হাতে রেখে আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে টাইগার যুবারা। চলতি বছরের শেষদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে বসবে অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ। এবার ‘ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন’ এর খেতাব নিয়ে খেলতে নামবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। আকবর আলীদের উত্তরসূরিরা নিজেদের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন। সিলেটে আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের নিজেদের আধিপাত্য বজায় রেখেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২২২ রান সংগ্রহণ করে টাইগার যুবারা। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৬ রানের মধ্যেই হারিয়ে বসে ২ উইকেট, ১ রান করা প্রান্তিক নওরোজের পর শূন্য রানে ফেরেন খালিদ হাসান।

মফিজুল ইসলামকে নিয়ে তৃতীয় উইকেটে আইচ যোগ করেন ৬৭ রান, ৯৩ বলে ২৭ রান করে মফিজুল ফিরলে ভাঙে সে জুটি। অধিনায়ক মেহরবের সঙ্গে আইচের চতুর্থ উইকেট জুটিতে ওঠে ৫৩ রান, যদিও সে জুটিতে মেহরবের অবদান মাত্র ৭। এরপর তাহজিবুল ইসলামের সঙ্গে ৩৩ রানের পর আবদুল্লাহ আল মামুনের সঙ্গে আরও ৪৯ রান তোলেন আইচ।

আইচ ফিফটি পূর্ণ করেন ৭৪ বলে। তবে ফিফটি থেকে সেঞ্চুরিতে যেতে তার লেগেছে আর ৫০ বল। ফয়সাল খান আহমেদজাইয়ের বলে ফ্লিক করে চার মেরে সেঞ্চুরির মাইলফলকের দেখা পান ডানহাতি আইচ। শেষ পর্যন্ত তার বলেই ক্যাচ তুলে ফেরেন তিনি। ১৩০ বলে ১০৮ রানের ইনিংসে আইচ মেরেছেন ৮টি চারের সঙ্গে ৪টি ছয়। এদিন দলের ৪৮.৬৪ শতাংশ রান একাই করেছেন তিনি। ৪৯তম ওভারের প্রথম বলেই আইচ ফিরেছিলেন, বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের রান ছিল তখন ২০২। শেষ পর্যন্ত তারা ২২২ রান পর্যন্ত গেছে মূলত মামুনের ২০ বলে ৩২ রানের ঝোড়ো ইনিংসে। ১টি চারের সঙ্গে ৩টি ছয় মেরেছেন মামুন। আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের আহমেদজাই ৩ উইকেট নিয়েছেন ৩৯ রানে, ১টি করে উইকেট নিয়েছেন নাভিদ জাদরান, ইজহারুলহক নাভিদ ও ইজাজ আহমেদ।

রান তাড়ায় আফগানিস্তানের যুবারা প্রথম উইকেট হারায় ১৩তম ওভারে। তবে রান তুলতে হিমশিম খেয়েছে তারা। ১৯তম ওভারে দ্বিতীয় উইকেট হারানোর সময়ও তাদের রান ছিল মাত্র ৩৬। সাবাউন বানুরি ও সুলিমান সাফিদুই আফগান ওপেনারকেই ফিরিয়েছেন অফ স্পিনার আরিফুল ইসলাম। মাঝে অধিনায়ক ইজাজ ও বিলাল সায়েদি জুটি গড়ার চেষ্টা করলেও ৩২ রানের বড় হয়নি সেটা। পরে এ দুজনকেই ফিরিয়েছেন নাইমুর। পরের দুই উইকেটও নিয়েছেন নাইমুরই জাহিদুল্লাহ সালিমি ও ইজাজ আহমেদ আহমেদজাইয়ের দুজনই হয়েছেন স্টাম্পড। এরপর ডানহাতি পেসার রিপন মণ্ডল নিয়েছেন ৩ উইকেট। নিজের অষ্টম ওভারে এসে নাভিদকে ক্যাচ বানিয়ে নিজের পঞ্চম উইকেট পেয়েছেন নাইমুর।

মঙ্গলবার তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচে আফগানদের একেবারেই পাত্তা দেয়নি স্বাগতিকরা। প্রথম ম্যাচে ১৬ রানে জয়ের পর সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ জেতে ৩ উইকেটে জিতে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। মঙ্গলবার তৃতীয় ম্যাচ ১২১ রানের বিশাল ব্যবধানে জিতে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয় নিশ্চিত করল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়