মেঘমুক্ত আকাশে বছরের প্রথম কাঞ্চনজঙ্ঘার উঁকি

আগের সংবাদ

বর্জ্যের কারণে মৎস্যসম্পদ ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে: শ ম রেজাউল

পরের সংবাদ

জুড়ীর লাঠিটিলাতেই হবে দেশের তৃতীয় বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক: পরিবেশমন্ত্রী

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১ , ৭:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১২, ২০২১ , ৭:৩৬ অপরাহ্ণ

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়কমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেছেন, বনভূমি ও বন্যপ্রাণী রক্ষার জন্যই জুড়ী উপজেলার লাঠিটিলায় ৯৮০ কোটি ব্যয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে দেশের তৃতীয় সাফারি পার্ক নির্মাণ করা হবে। জুড়ী উপজেলাবাসী ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোনো অপপ্রচারই জুড়ীতে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক স্থাপনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারবে না।

শনিবার সকাল ১১টায় জুড়ী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার জনবান্ধব সরকার, উন্নয়নের সরকার। জুড়ীকে “গ্রিন জুড়ী, ক্লিন জুড়ী” প্রকল্পের আওতায় আনতে ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। জুড়ী-বড়লেখাকে আলোকিত করে তুলতে ৫ কোটি টাকার সৌরবিদ্যুৎ বাল্ব সড়কে বসানো হচ্ছে। আপনারা সকল অপপ্রচার প্রতিরোধে সবসময় প্রস্তুত থাকবেন।

তিনি আরও বলেন, জুড়ীতে একটি মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হবে। ইতোমধ্যে ১৩ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়ে গেছে। দ্রুত কাজ শুরু করা হবে। জুড়ীতে মডেল মসজিদের জমি নিয়ে জটিলতা থাকায় কাজ শুরু করতে বিলম্বিত হচ্ছে। মসজিদের নতুন জমি অধিগ্রহণ করে দ্রুত কাজ শুরু হবে। জুড়ী-ফুলতলা সড়কের কাজ ডিসেম্বরের ৩১ তারিখের মধ্যে শেষ না করলে ঠিকাদারের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোনিয়া সুলতানার সভাপতিত্বে এবং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা একাডেমিক সুপারভাইজার মো. আলাউদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা রাকেশ পাল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মোঈদ ফারুক, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তপন কুমার অধিকারী, জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় চক্রবর্তী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রিংকু রঞ্জন দাস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রঞ্জিতা শর্মা, জেলা আওয়ামীলীগ সহ-সভাপতি অপূর্ব কান্তি ধর।

এছাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ও ফুলতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুক আহমদ, পূর্বজুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সালেহ উদ্দিন আহমেদ, পশ্চিমজুড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শ্রীকান্ত দাশ, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহসভাপতি জাকির আহমদ কালা, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুল ইসলাম কাজল, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুনুর রশিদ সাজু, জায়ফরনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির দারা, উপজেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আফজাল হোসেন চিকন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাব উদ্দিন সাবেল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উপজেলার চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় এককালীন আর্থিক অনুদান বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়কমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন এমপি আরো বলেন, চা শ্রমিকদের এক সময় এ দেশে ভোটের অধিকার ছিল না। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চা- শ্রমিকদের প্রথম ভোটের অধিকার দিয়েছিলেন। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছেন।

তিনি বলেন, এ সরকার জনগণের ও গরীব দুঃখী মানুষের সরকার। সাধারণ জনগণের ভাগ্য উন্নয়নে দিন রাত কাজ করে যাচ্ছে বর্তমান সরকার। জুড়ী উপজেলার লাঠিটিলায় নির্মাণ করা হবে দেশের তৃতীয় বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক। জনগণের ক্ষতি করে এখানে সাফারি পার্ক নির্মাণ করা হবে না। বরং জনগণের স্বার্থ ও বনভূমি সংরক্ষণ করে এই সাফারি পার্ক নির্মাণ করা হবে। যারা সাফারি পার্কের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, আপনারা দেশের উন্নয়নে বাধাগ্রস্থ করবেন না। সাফারি পার্কের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে লাভ হবে না। জুড়ীর লাঠিটিলাতেই হবে দেশের তৃতীয় বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক।

অনুষ্ঠানে সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়িত উপজেলার চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় এককালীন আর্থিক অনুদান হিসেবে ৩৪৪৭ জন চা শ্রমিকদের মধ্যে জনপ্রতি ৫০০০ টাকা করে মোট এক কোটি বাহাত্তর লক্ষ পঁয়ত্রিশ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে।

রি-এসইএস/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়