একদিনে আরও ২৬৭ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আগের সংবাদ

বিসিবি ছাড়ার ইঙ্গিত দিলেন পাপন

পরের সংবাদ

আফগানিস্তান থেকে ১৬০ শিক্ষার্থীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত: আগস্ট ২৬, ২০২১ , ৭:৪০ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ২৬, ২০২১ , ৭:৪০ অপরাহ্ণ

আফগানিস্তানে এখনো ১৬০ বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের প্রকৃত অবস্থা জানা যাচ্ছে না। তাদের বিষয়ে নিরাপত্তা ঝুঁকি আছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। সাউথ সুদান, সাউথ আফ্রিকা দুই দেশ সফর শেষে এর খূঁটিনাটি জানাতে বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) ঢাকায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশি নাগরিক যারা এখনো আফগানিস্তানে রয়ে গেছেন তাদরে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। তবে কিভাবে আনা হবে সেই কৌশল বলতে অপরাগতা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আফগানিস্তানে আমাদের মিশন নেই। এজন্য উজবেকিস্তানের সহায়তা নেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশী শান্তি রক্ষাবাহিনীর সদস্যদের প্রশংসা করে মন্ত্রী বলেন, পেশাদারিত্বের সঙ্গে দ্বায়িত্ব পালন করে তারা দেশের সুনাম বয়ে আনছেন। একটা মিশন করার দাবী সাউথ সুদানে। এছাড়া পতিত জমি লিজ নিয়ে কৃষি কাজ করতে দিতে রাজি, সে দেশের সরকার। এরফলে ভালো একটি সম্পর্ক বিকশিত করা সম্ভব হবে হবে বলে জানান তিনি।

সাউথ আফ্রিকার বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন, নারীর ক্ষমতায়ন ও সামাজিক সুরক্ষায় বিশ্বাস করে দেশটি। দেশটি বাংলাদেশে মিশন খোলার প্রস্তাব দিয়েছে। বাংলাদেশ কনসাল জেনারেল অফিস খোলার বিষয়ে রাজি হয়েছে। তৈরি পোষাক শিল্পের বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছে দেশটি। শিল্প স্থাপন ও কর্মসংস্থান করলে প্রয়োজনীয় সহায়তা দেবে সাউথ আফ্রিকা। সবমিলিয়ে আফ্রিকাকে আরো বেশি গুরুত্ব দেয়া উচিত ছিল বলে মনে করেন তিনি।

করোনার টিকা নিয়েও কথা বলেন ড. মোমেন। তিনি জানান, ইউএস থেকে ফাইজার বায়োএনটেকের আরো ১০ লাখ টিকা আসছে। সবমিলিয়ে টিকার যে সরবরাহ শুরু হয়েছে তাতে আমাদের আপাতত সংকট নেই বলা যায়। তবে উন্নতদেশ টিকা নিয়ে বসে আছে। নষ্ট করে ফেলে দিচ্ছে। বিষয়টি টেনে প্রশ্ন রেখে বলেন, সেখানে কি মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে না? বৈশ্বিক পণ্য গণ্য করছে না। জাতিসংঘের (ইউএন) একটি বিষয় টেনে মন্ত্রী বলেন, ইউএন-এ সাইড লাইন বৈঠকের কোন অনুমতির প্রয়োজন হয় না। শুধু লজিস্টিকস সাপোর্ট দেয়। বৈঠক গুলো বাইরেও করা যায়। প্রসঙ্গত, এই সাইড লাইন বৈঠক নিয়ে একটি বিতর্ক দেখা দিয়েছিল এবং একটি পত্রিকার এ বিষয়ে রিপোর্টও ছাপা হয়েছিল। রিপোর্ট ছাপার পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় প্রতিবাদও দিয়েছে। বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রীও এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন। মন্ত্রী ভারত সফর নিয়েও কথা বলেন। ২০ অগাস্টের মধ্যেই মন্ত্রীর ভারত যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তারা এখনও প্রস্তুত না থাকায় সফরটি হয়নি।

ডি-আরআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়