করোনায় আরও ১৯৭ মৃত্যু, শনাক্ত ১৪ লাখ ছাড়াল

আগের সংবাদ

মেসির সঙ্গে বার্সেলোনার ‘বিশ্বাসঘাতকতার’ পেছনের গল্প

পরের সংবাদ

পথহারা রাজনীতির সংস্কার প্রয়োজন

প্রকাশিত: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৬:১৯ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৬:১৯ অপরাহ্ণ

দুর্নীতি আর দুর্বৃত্তায়নের কারণে রাজনীতি ক্রমান্বয়ে জনগণের আস্থা হারাচ্ছে। সুবিধাবাদী আর লুটেরারা এখন রাজনীতি নিয়ন্ত্রণ করছে। ফলে জাতীয় সংকট মোকাবিলায় জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে না। এ অবস্থায় পথহারা রাজনীতির সংস্কার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। শুক্রবার (১৩ আগস্ট) নয়াপল্টনে যাদু মিয়া মিলনায়তনে প্রয়াত আনোয়ার জাহিদের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ‘আনোয়ার জাহিদ স্মৃতি সংসদ’ আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে আলোচকরা এসব কথা বলেন।

আনোয়ার জাহিদ স্মৃতি সংসদের সভাপতি ও এনডিপির মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিএলডিপি চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী এম. নাজিমউদ্দিন আল আজাদ বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে এক ধ্রুবতারার নাম আনোয়ার জাহিদ। নীতিহীন রাজনীতির যুগে তিনি ছিলেন অনুস্মরণীয় ও অনুকরণীয়। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের সঙ্গে ভদ্রভাষায়ও যে ভিন্নমত প্রকাশ করা যায়, তার জলন্ত দৃষ্টান্ত ছিলেন তিনি। এখন রাজনীতিবিদরা পরিহাসের পাত্রে পরিণত হয়েছেন। দলীয় বিবেচনায় তাদের অসম্মানিত করা হচ্ছে। যা জাতির জন্য কল্যাণকর নয়।

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, মরহুম আনোয়ার জাহিদ ছিলেন সংগ্রামী জাতীয়তাবাদী নেতা ও দেশপ্রেমিক, এক সময়ের খ্যাতিমান সাংবাদিক। তার মতো মেধাবী ও দেশপ্রেমিক রাজনীতিকদের ব্যবহার করে প্রয়োজন শেষে যারা ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছেন, সময় তাদের ক্ষমা করেনি। তারাই আজ পদে পদে অপমানিত হচ্ছেন। তিনি তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের কঠোর সমালোচনা করলেও কারো সম্পর্কে কটুক্তি বা অশ্লিল শব্দ ব্যাবহার করতেন না। যা আজকের রাজনীতিতেই ক্রমেই হ্রাস পাচ্ছে।

সভাপতির বক্তব্যে মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, নীতিহীন রাজনীতির যুগে তিনি সততা ও মেধাভিত্তিক রাজনীতির এক উজ্জল নক্ষত্র। যে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির জন্য আনোয়ার জাহিদ সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করেছেন, তারা তাকে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করতে ব্যর্থ হয়েছেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন লেবার পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান হামদুল্লাহ আল মেহেদী, রিপাবলিকান পার্টির চেয়ারম্যান অধ্যাপক বজলুর রহমান আমিনী, বাংলাদেশ ন্যাপ সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া প্রমুখ।

রি-এমআর/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়