ডেঙ্গুর লক্ষণে ২৫ মৃত্যুর ঘোষণা ‘নেই’

আগের সংবাদ

একদিনে আরও দুটি শহরের দখল নিল তালেবান

পরের সংবাদ

নাথিং উইল গো আন-চ্যালেঞ্জড

প্রকাশিত: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৮:৪৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৮:৪৬ পূর্বাহ্ণ
পরাধীন ব্রিটিশ-ভারত থেকে পাকিস্তানের কালো অধ্যায় পেরিয়ে জন্ম হয় বাংলাদেশ নামক স্বাধীন রাষ্ট্রের। এই মহান অর্জনের সঙ্গে জড়িয়ে আছে ইতিহাসের মোড় ঘোরানো নানা ঘটনা, যার কারিগর হিসেবে কেউ আখ্যায়িত হয়েছেন নায়কের অভিধায়; কেউবা আবির্ভূত হয়েছেন খলনায়কের চরিত্রে। ইতিহাসের বাঁকে বাঁকে সেসব ঘটনা ও তার নায়ক-খলনায়কদের কার কি ভূমিকা, তাই নিয়েই অধ্যাপক আবু সাইয়িদের গ্রন্থ ‘যেভাবে স্বাধীনতা পেলাম’।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, ‘হানাদার বাহিনীর হাত থেকে দেশকে মুক্ত করা না পর্যন্ত সংগ্রাম চলবে।’ তিনি বলেছিলেন, ‘নাথিং উইল গো আন-চ্যালেঞ্জড’। জেনারেল টিক্কা খান ঘোষণা দেন, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সব ঠাণ্ডা করে দেয়া হবে। তিনি বলেছিলেন, ‘মানুষ চাই না, মাটি চাই।’

জেনারেল টিক্কা খান ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বাঙালির প্রতিরোধ আন্দোলন ধ্বংস করার যে দম্ভোক্তি উচ্চারণ করেছিল সংগ্রামী জনগণ তা রুখে দেয়। সর্বত্র শুরু হয় সশস্ত্র প্রতিরোধ। যার যা আছে তাই নিয়ে গ্রামে-গঞ্জে সর্বত্র প্রতিরোধ যুদ্ধ শুরু হয়।

জনতার সম্মিলিত ঐক্যশক্তি ও সশস্ত্র শক্তির সম্মেলনে বাঙালির মানস জগতে এক দুর্জয় বিজয়ের আকাক্সক্ষাকে উদ্দীপ্ত করেছিল। ফলে ভীতু বাঙালিকে কসাই টিক্কা খান সহজে কাবু ও দেশকে তার পরিকল্পনা অনুযায়ী কব্জা করতে ব্যর্থ হয়। পাকিস্তান জেনারেল ও সমর পরিকল্পনাবিদদের কাছে তাকে অবমাননাকর অবস্থায় পড়তে হয়েছে।

পাকিস্তানি ভাষ্য : ২৫ মার্চ স্বাধীন বাংলা ঘোষিত হবে
পূর্বের অধ্যায়ে বঙ্গবন্ধুর কৌশল, ভুট্টোর চাতুর্য এবং ইয়াহিয়া খানের প্রহসনমূলক ধাপ্পাবাজি সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত আলোচনা হয়েছে। সেই আলোচনার পুরোটা তখন প্রচারিত বা প্রকাশিত হয়নি। পাকিস্তান সামরিক বাহিনী ও পশ্চিম পাকিস্তানের জনগণকে বানোয়াট তথ্যে বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যে পাকিস্তান গোয়েন্দা বাহিনী যেভাবে সে সময়ের ঘটনাবলি তুলে ধরেছিল সেই রিপোর্টটি ইতিহাসে দ্বান্দিক প্রক্রিয়ায় সত্য প্রকাশের লক্ষ্যে পর্যবেক্ষণ করা যেতে পারে।

আগামীকাল প্রকাশিত হবে
‘পাকিস্তান গোয়েন্দা বাহিনীর ভাষ্য’
‘যেভাবে স্বাধীনতা পেলাম’- বইটি পাওয়া যাচ্ছে ভোরের কাগজ প্রকাশনে (ভোরের কাগজ কার্যালয়, ৭০ শহীদ সেলিনা পারভীন সড়ক, মালিবাগ, ঢাকা)। এছাড়া bhorerkagojprokashan.com থেকেও সংগ্রহ করা যাবে।

ডি-এফবি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়