আফগানিস্তানে শরণার্থীর ঢল, প্রতিবেশী দেশের সীমান্ত খোলার আহ্বান

আগের সংবাদ

মেসিকে পেয়ে ফুলেফেঁপে উঠেছে ফরাসি ফুটবল

পরের সংবাদ

জিতে লাভ হয়নি সাইফের, ক্ষতি আবাহনীর

প্রকাশিত: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৯:৪৬ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৯:৪৬ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে শুক্রবার নিজেদের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে খেলতে নামে ঢাকা আবাহনী। দারুণ রোমাঞ্চকর এ ম্যাচটিতে আবাহনীকে ৩-২ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে সাইফ স্পোর্টিং। ম্যাচটিতে সাইফ স্পোর্টিংয়ের হয়ে জোড়া গোল করেন কেনিথ ইকেচুকু। অপর গোলটি করেন জন ওকোলি। অপরদিকে ঢাকা আবাহনীর হয়ে গোল করেন কারভেনস বেলফোর্ট ও জুয়েল রানা।

এ ম্যাচটিতে জয় পেয়ে সাইফ স্পোর্টিংয়ের কোনো লাভ হয়নি। কারণ আবাহনীর বিপক্ষে লড়ার আগে তারা পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে ছিল। এ ম্যাচটি জয়ের পরও তারা পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানেই অবস্থান করছিল। কিন্তু সাইফের বিপক্ষে হেরে বেশ বড় ক্ষতি হয়েছে ঢাকা আবাহনীর। কারণ এই হারে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসতে ব্যর্থ হয়েছে তারা। গতকাল উত্তর বারিধারাকে ৫-১ গোলের বড় ব্যবধানে হারিয়ে ঢাকা আবাহনীকে হটিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছিল শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। আজ শুক্রবার (১৩ আগষ্ট) আবাহনীর সামনে ফের পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসার সুযোগ ছিল। কিন্তু এ সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়েছে। এমনকি শেখ জামালের চেয়ে ঢাকা আবাহনী আরো একটি ম্যাচ বেশি খেলেছে।

অবশ্য ঢাকা আবাহনীর বিপক্ষে প্রথমে সহজ জয়ের পথে থাকলেও শেষ পর্যন্ত ঘাম ঝরানো জয় পেতে হয়েছে সাইফ স্পোর্টিংকে। ম্যাচের প্রথমার্ধেই ২টি গোল করে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় সাইফ। এমনকি ম্যাচের ৭৬ মিনিট পর্যন্ত এ ব্যবধান ধরে রাখতে সমর্থ হয় তারা। কিন্তু এরপর দুই মিনিটের ব্যবধানে আবাহনী ২টি গোল করলে মূল উত্তেজনা শুরু হয়। যদিও শেষ পর্যন্ত ৮১ মিনিটের সময় সাইফ তাদের তৃতীয় গোলটি তুলে নিতে সমর্থ হয়। পরে আবাহনী এ গোল শোধ করতে ব্যর্থ হলে সাইফ পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে সমর্থ হয়।

বর্তমানে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থাকা শেখ জামাল ২০টি ম্যাচ খেলেছে। তাদের পয়েন্ট হলো ৪২। তৃতীয় স্থানে আছে ঢাকা আবাহনী। তারা ২১ ম্যাচ খেলেছে। তাদের পয়েন্ট ৪০। চতুর্থ স্থানে থাকা চট্টগ্রাম আবাহনী খেলেছে ২০টি ম্যাচ। তাদের পয়েন্ট ৩৭। পঞ্চম স্থানে রয়েছে মোহামেডান। তারা ২০ ম্যাচ খেলে ৩৬ পয়েন্ট সংগ্রহ করতে সমর্থ হয়েছে। ষষ্ঠ স্থানে থাকা সাইফ স্পোর্টিং ২০ ম্যাচ খেলে ৩৫ পয়েন্ট পেয়েছে। সপ্তম স্থানে রয়েছে শেখ রাসেল। তারাও খেলেছে ২০ ম্যাচ। তাদের নামের পাশে রয়েছে ৩০ পয়েন্ট। অষ্টম স্থানে অবস্থান বাংলাদেশ পুলিশ এফসির। তারা এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ২০ ম্যাচ খেলে ২০ পয়েন্ট পায়। এ রিপোর্ট লেখার সময় মুক্তিযোদ্ধা সংসদের বিপক্ষে খেলছিল পুলিশ এফসি। নবম স্থানে রয়েছে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি ক্লাব। তারা ১৯ ম্যাচ খেলে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে। দশম স্থানে উত্তর বারিধারা। তারা ২০ ম্যাচ খেলে পেয়েছে ১৬ পয়েন্ট। উত্তর বারিধারার সমান ২০টি ম্যাচ খেলে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অবস্থান ছিল ১১তম স্থানে। ১২তম স্থানে অবস্থান রয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়নের। তারা ১৯ ম্যাচ খেলে মাত্র ৬ পয়েন্ট পেয়েছে। অপরদিকে সবার শেষে রয়েছে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ। তারা ২০ ম্যাচ খেলে ৫ পয়েন্ট পেয়েছে।

এদিকে সাইফ স্পোর্টিংয়ের হয়ে ম্যাচের ৪৩ মিনিটের সময় ইকেচুকু প্রথম গোলটি করেন। প্রথমার্ধের শেষ বাঁশি বাজার আগ মুহূর্তে জন ওকোলি গোল করে সাইফের ব্যবধান বাড়ান। এই ২টি গোলের মধ্যে প্রথমটি অনেক চেষ্টার পর শোধ করতে সমর্থ হয় আবাহনী। তাদের হয়ে এ গোলটি করেন কার্ভেনস বেলফোর্ট ৭৬ মিনিটের সময়। এরপর ৭৮ মিনিটের সময় জুয়েল রানা গোল করলে আবাহনীরই উল্টো জয়ের সম্ভাবনা তৈরি হয়। কিন্তু ম্যাচের ৮১ মিনিটের সময় সেই ইকেচুকু আবার গোল করলে সাইফ এগিয়ে যায় এবং শেষ পর্যন্ত জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে সমর্থ হয়।

আর-এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়