আদালতে যা বললেন পরী মনির আইনজীবী ও রাষ্ট্রপক্ষ

আগের সংবাদ

পদ্মা সেতুতে ধাক্কা, ফেরি ঘাট স্থানান্তরের পরিকল্পনা

পরের সংবাদ

এক ট্রলারে ৮৭ মণ ইলিশ, বিক্রি হলো ২৭ লাখ!

প্রকাশিত: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৫:৩৭ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ১৩, ২০২১ , ৫:৩৭ অপরাহ্ণ

বঙ্গোপসাগরে হঠাৎ ইলিশের দেখা মিললো। এক ট্রলারেই ধরা পরলো ৮৭ মণ ইলিশ। ট্রলারের ওই ইলিশ মাছ ২৭ লাখ টাকায় বিক্রি হয়ে গেছে মূহুর্তেই!

শুক্রবার (১৩ আগষ্ট) দুপুর ১২টার দিকে দেশের বৃহত্তম মৎস্য অবতরন কেন্দ্র বরগুনার পাথরঘাটা (বিএফডিসি) এলাকায় খবরটি তাৎক্ষণিক চারদিকে ছড়িয়ে পরলে অনেকেই এই মাছ এবং তার দর কষাকষি দেখতে ছুটে আসেন।

এফ.বি. সাইফ-২ নামক মাছধরার ওই ট্রলারটি মাছ নিয়ে শুক্রবার দুপুরে বিএফডিসি ঘাটে অবতরণের সঙ্গে সঙ্গে ইলিশগুলো ক্রয় করেন সেমার্স সাইফ ফিশিং কোম্পানী এন্ড কমিশন এজেন্ট।

শিল্পপতি মোস্তফা ইকবাল হোসেন মানিকের এফ.বি. সাইফ ২ ট্রলারের জেলেমাঝি জামাল হোসেন বলেন, কয়েকদিন আগে বাজার সদায় নিয়ে গভীর সাগরে মাছ শিকার করতে যান। সাগরে গিয়ে মাছ ধরার জন্য কয়েকটি খেও দিতেই প্রচুর পরিমাণে মাছ ধরা পরে।

ট্রলারে মাছ রাখার ধারন ক্ষমতা পূরণ হয়ে গেলে দ্রুত তারা পাথরঘাটা মৎস্য অবতরণ কেন্দ্র (বিএফডিসি) ঘাটে ফিরে আসেন। শুক্রবার সকাল থেকেই মাছ বিক্রি শুরু হয়ে দুপুর ১২টায় তা শেষ হয়।

হঠাৎ একটি ট্রলারে এতো পরিমাণ মাছ ধরা পরায় বিএফডিসি মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে উৎসুক মানুষের ভিড় চোখে পড়েছে। স্থানীয় অনেকের মুখেই শোনা গেলো এতো বড় বড় সাইজের ইলিশ এবং একই ট্রলারে এতো পরিমাণ মাছ খুব শিগগিরই দেখিনি। এক একটি মাছের ওজন হবে দেড় থেকে দুই কেজি।

বরগুনা জেলা মৎস্যজীবী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, পাথরঘাটার মৎস্য খাতে এটি একটি নজির।

মেসার্স সাইফ ফিশিং কোম্পানীর স্বত্বাধিকারী পাথরঘাটা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কবির বলেন, বর্তমানে ইলিশের ভরা মৌসুম। কিন্তু এখন পর্যন্ত কাঙ্খিত ইলিশ জেলেদের জালে ধরা না পরলেও একটি ট্রলারে এতো মাছ নজিরবিহিন। আমরা মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট শুকরিয়া জ্ঞাপন করছি।

রি-এটি/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়