সাম্প্রদায়িক হামলাকারীদের বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নিতে হবে

আগের সংবাদ

সিংগাইরে সড়ক দুর্ঘটনায় কলেজ ছাত্র নিহত, আহত ১

পরের সংবাদ

মেসি ৩০ শুরু ৩০ শেষ!

প্রকাশিত: আগস্ট ১১, ২০২১ , ৯:০১ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ১১, ২০২১ , ৯:০৬ অপরাহ্ণ

প্যারিসে পৌঁছানোর আগে মেসির স্বপ্নের পুরোটা ছিল স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনাকে নিয়ে। অবশ্য বার্সাকে নিয়ে তার কোনো স্বপ্ন অধরা থাকার কথা নয়। আর বার্সা ছেড়েছেন বলেই তো এখন স্বপ্ন বুনছেন নিজের ক্যারিয়ারে নতুন ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) নিয়ে। বুধবার (১১ আগস্ট) পিএসজির সঙ্গে চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে মেসি তার স্বপ্নের কথা জানান।

যেখানে ফুটবল জাদুকর লিওনেল আন্দ্রেস মেসি বলেন, আমার লক্ষ্য এবং স্বপ্ন আবারো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয় করা। আমি মনে করি, আমরা (পিএসজি) এমন দল যারা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের সামর্থ্য রাখি।

এর আগে, মেসি তার ক্যারিয়ারে চার বার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা জয়ের স্বাদ পান। তবে সেগুলো ছিল বার্সার জার্সি গায়ে। এবার পিএসজির হয়ে মেসি জিততে চান চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ট্রফি।

এর আগে, গত মঙ্গলবার (১০ আগস্ট) মেসি স্পেন থেকে প্যারিসের উদ্দেশে যাত্রা করেন। প্যারিসে পৌঁছে তার শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে পিএসজির সঙ্গে দু বছরের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন। চুক্তি অনুযায়ী, মেসি প্রতি সপ্তাহে এক মিলিয়ন পাউন্ড বেতন পাবেন। টাকার পরিমাণে যেটি দাঁড়ায় প্রায় ১২ কোটি টাকার কাছাকাছি। অবশ্য মেসি চাইলে দুই বছরের জায়গায় পিএসজিতে তিন বছরও অবস্থান করতে পারবেন। চুক্তিতে সেভাবেই বাড়তি এক বছরের কথা উল্লেখ আছে। যা নির্ভর করছে মেসির ইচ্ছার ওপর। তবে আপাতত মেসি দুবছর পিএসজিতে থাকছেন এটাই সুনিশ্চিত।

আজ মেসিকে আনুষ্ঠানিকভাবে পিএসজির ফুটবলার হিসেবে ঘোষণা দিতে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ক্লাবটির সভাপতি নাসের আল খেলাইফি। মেসিকে পিএসজিতে স্বাগত জানিয়ে খেলাইফি বলেন, আমি অনেক বেশি খুশি এবং গর্ববোধ করছি। মেসিকে পিএসজির ফুটবলার হিসেবে ঘোষণা করতে পেরে। এটা আমাদের জন্য খুবই আনন্দঘন মুহূর্ত।

এ সময় খেলাইফি মেসির প্রসংশা করে বলেন, তিনি একমাত্র ফুটবলার যে ছয়বার ব্যালন ডি’অর জিতেছে। লিও ফুটবলকে করেছে জাদুময়, সুন্দর এবং সে বিজেতাদের একজন।

সংবাদ সম্মেলনে ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে নিয়ে প্রশ্নের জবাবে খেলাইফি জানান, আমরা ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে-কে সব সময় সম্মান জানিয়ে আসছি। আমাদের আর্থিক লেনদেনের বিষয়টি পরীক্ষা করেই আমরা মেসিকে চুক্তি করিয়েছি। গণমাধ্যমগুলোর উচিত নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশ না করে মেসিকে এখানে চুক্তি করানোকে ইতিবাচক হিসেবে দেখা।

লিওনেল মেসিকে দেখে ভক্তদের উল্লাস।

এদিকে সংবাদ সম্মেলন শেষে খেলাইফি মেসিকে পিএসজির ৩০ নাম্বার জার্সি উপহার দেন। ৩০ নাম্বার জার্সিতে মেসি খেলবে- এটা অনেক মেসি ভক্তই মানতে পারছেন না। কিন্তু মেসি নিজেই এই জার্সিতে খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। কারণ মেসির বার্সেলোনায় ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল ৩০ নাম্বার জার্সি দিয়ে। হয়তো নিজের ক্যারিয়ারও শেষ করে যেতে চান এই জার্সি গায়ে। তারকা প্লেয়ারের খ্যাতি যে ১০ নাম্বার জার্সি পিএসজিতে সেটা নেইমারের গায়ে। অবশ্য ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার নেইমার তার ১০ নাম্বার জার্সি বন্ধুর জন্য ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু মেসি নিজেই তাতে সম্মতি দেননি। বন্ধুর জন্য নিজেই আত্মত্যাগ করতে প্রস্তুত তা একপ্রকার বুঝিয়েই দিলেন বর্তমান বিশ্বের সেরা ফুটবলার লিওনেল আন্দ্রেস মেসি।

বন্ধু নেইমারকে নিয়ে প্রশ্নের জবাবে মেসি জানান, এখানে আসার পেছনে নেইমারের উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে। তাছাড়া ড্রেসিংরুমে পিএসজির এই দলটায় আমি অনেক পরিচিত মানুষকে পাব। নেইমার, ডি মারিয়া, পেরেডসসহ এখানে আমার বেশ কিছু বন্ধু রয়েছে। যাদের পেয়ে আমি খুবই উৎফুল্ল। এ সময় তিনি আরো জানান, পিএসজি এবং আমার একই লক্ষ্যে। আমি আশা করি সেটা আমরা একসঙ্গে অর্জন করতে পারব।

অবশেষে মেসি লিগ ওয়ানে খেলছেন। এখানে খেলার বিষয়ে আবেগ-অনুভূতি প্রকাশ করে মেসি জানান, আমি এক মাসের বেশি সময় ধরে মাঠের বাইরে। গতকাল কোচিং স্টাফদের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। খুব সম্ভবত আমার নিজের জন্য একটা প্রস্তুতি নিজে সেরে নেব। আমি খুব দ্রুত চাইছি মাঠে ফিরতে। কিন্তু ঠিক কখন মাঠে নামতে পারব সেটা এ মুহূর্তে বলতে পারছি না।

এদিকে পিএসজির জার্সি মেসির গায়ে উঠেছে। এখন তার সাবেক ক্লাব বার্সাও তার প্রতিপক্ষ। বার্সার বিপক্ষে খেলা নিয়ে তার অনুভূতি জানতে চাইলে মেসি বলেন, সবাই জানে বার্সার প্রতি আমার কী রকম আবেগ এবং ভালোবাসা। বার্সায় আমি ছোটবেলা থেকে খেলে আসছি। বার্সাই আমার বাড়ি। বার্সার জার্সি রেখে অন্যকোনো দলের জার্সি গায়ে ন্যূ ক্যাম্পে প্রবেশ খুবই অদ্ভূত ঠেকাবে আমার জন্য। কিন্তু এটা যে ফুটবল, এখানে সব সম্ভব। ইউরোপে কখনো দেখা হলে অবশ্যই আপনারা আমাকে বার্সার বিপক্ষে মাঠে দেখতে পাবেন।

এদিকে মেসি প্রবেশের ফলে এমবাপ্পের পিএসজিতে থাকা নিয়ে আশঙ্কা আরো দ্বিগুণ হচ্ছে। পৃথিবীর ফুটবলবোদ্ধারা ধরেই নিচ্ছেন এমবাপ্পে বুঝি এবার রিয়ালের দিকে পা বাড়াচ্ছেন। কিন্তু গতকাল ফুটবলবোদ্ধাদের সে সন্দেহেরও উত্তর দিয়েছেন পিএসজি সভাপতি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এমবাপ্পে পিএসজিতেই থাকছেন। তিনি পিএসজির ফুটবলার। এমবাপ্পে জনসম্মুখে জানিয়েছেন, তিনি ক্লাব ছেড়ে কোথাও যাচ্ছেন না।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়