শেষ ম্যাচ নিয়ে তিন ক্রিকেটারের প্রত্যাশা

আগের সংবাদ

জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা সোমবার

পরের সংবাদ

বিদায় টোকিও স্বাগত প্যারিস

প্রকাশিত: আগস্ট ৮, ২০২১ , ১০:৪৯ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৮, ২০২১ , ১০:৪৯ অপরাহ্ণ

জমকালো সমাপনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে রবিবার পর্দা নেমেছে টোকিও অলিম্পিকের। ২০২৪ সালে প্যারিসে বসবে অলিম্পিকের পরবর্তী আসর। এবারের অলিম্পিকে স্বর্ণসহ সব পদক মিলিয়ে সেরা হয়েছে আমেরিকা। তারা মোট পদক জিতেছে ১১৩টি। এর মধ্যে স্বর্ণপদক ৩৯টি। অন্যদিকে ৩৮টি স্বর্ণসহ মোট ৮৮টি পদক নিয়ে দ্বিতীয় হয়েছে চীন। ২৭টি স্বর্ণসহ মোট ৫৮টি পদক জয় করে তৃতীয় হয়েছে স্বাগতিক জাপান। এবারের টোকিও অলিম্পিকের বেশির ভাগ দিন স্বর্ণপদক জয়ের শীর্ষস্থানে ছিল চীন। কিন্তু রবিবার শেষ দিন মাত্র একটি স্বর্ণ বেশি জয় করে চীনকে টপকে শীর্ষস্থানে উঠে আসে আমেরিকা। তারা সর্বশেষ রিও অলিম্পিকে ৪৬টি স্বর্ণপদক জয় করে সেরা হয়েছিল। চীন চেয়েছিল এবার সেরা হতে। কিন্তু শেষ দিন তারা পিছিয়ে পড়ে। চীন ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকেও ৩৮টি স্বর্ণ জিতেছিল। এবারো ৩৮টি স্বর্ণ জিতে নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয়বার সর্বোচ্চ স্বর্ণ জয় করেছে। রিও অলিম্পিকে তারা জিতেছিল ২৬টি স্বর্ণ। ফলে এবার তাদের উন্নতি হয়েছে।

পদক জয়ের দিক দিয়ে আমেরিকাকে সেরা বানাতে বেশি অবদান রেখেছেন দেশটির নারী অ্যাথলেটরা। ১১৩টি পদকের মধ্যে তারা এনে দিয়েছেন ৬৬টি পদক। আমেরিকার মতো চীনের পদকেও সবচেয়ে বড় অবদান রেখেছেন দেশটির নারী অ্যাথলেটরা। চীনকে প্রায় ৭০ ভাগ স্বর্ণপদকই এনে দিয়েছেন তারা।

এবারের অলিম্পিকে বাস্কেটবলের নারী ইভেন্টের ফাইনালে জাপানকে হারিয়ে টানা সপ্তম স্বর্ণ জিতেছে আমেরিকার নারী দল, তাছাড়া ওয়াটার পোলো দল টানা তৃতীয় স্বর্ণ জিতেছে এবং নারী ভলিবল দল এ ইভেন্টে দেশটিকে প্রথম স্বর্ণ এনে দিয়েছে।

মহিলাদের ৪০০ মিটার হার্ডেলসে সিডনি ম্যাকলাফলিন জিতেছেন স্বর্ণপদক, সিমিসা বাইলস, গ্যাবি ডগলাস, নাস্তিয়া লিউকিন ও কার্লি প্যাটারসনের পর সুনিসা লি জিমন্যাস্টিকসে আমেরিকাকে পঞ্চমবারের মতো ও টানা চতুর্থবারের মতো স্বর্ণ এনে দেন। মলি সেডেল আমেরিকাকে ম্যারাথনে ব্রোঞ্জপদক এনে দেন এবং অ্যালিসন ফেলিক্স নিজেদের পঞ্চম অলিম্পিকে ৪০০ মিটারে ব্রোঞ্জ এবং ৪০০ মিটার রিলেতে স্বর্ণ জয় করেন, যা তার ক্যারিয়ারের ১০তম এবং ১১তম অলিম্পিক পদক।

এদিকে রবিবার ওয়াটার পোলোতে পুরুষদের ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সার্বিয়া। ফাইনালে গ্রিসকে ১৩-১০ পয়েন্টের ব্যবধানে হারিয়ে এ পদক জিতে নেয় দলটি। রাশিয়ান অলিম্পিক কমিটিকে হারিয়ে এ ইভেন্টে ব্রোঞ্জ জিতেছে হাঙ্গেরি।

হ্যান্ডবল নারীদের ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছে ফ্রান্স। ফাইনালে এদিন রাশিয়ান অলিম্পিক কমিটিকে ৩০-২৫ পয়েন্টের ব্যবধানে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। সুইডেনকে হারিয়ে ব্রোঞ্জপদক জিতেছে নরওয়ে।

বক্সিংয়ে পুরুষদের সুপার হেভিওয়েট ইভেন্টে স্বর্ণ জিতে নিয়েছেন উজবেকিস্তানের বাখোদির জালোলোভ। ফাইনালে যুক্তরাষ্ট্রের রিচার্ড টোরেসকে ৫-০ ব্যবধানে হারিয়ে এ পদক জিতে নেন তিনি। এ ইভেন্টে ব্রোঞ্জপদক জিতেছেন গ্রেট ব্রিটেনের ফ্রেজার ক্লার্ক ও কামশিবেক কুনকাবেয়াভ। নারীদের মিডলওয়েট ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছেন গ্রেট ব্রিটেনের লরেন প্রাইস। ফাইনালে এদিন চীনের লি কিয়ানকে ৫-০ ব্যবধানে হারিয়ে এ পদক জিতে নেন তিনি। এ ইভেন্টে ব্রোঞ্জ জিতেছেন রাশিয়ান অলিম্পিক কমিটির জেনফিরা মাগোমেদালিভা ও নেদারল্যান্ডসের নৌচকা ফন্তিন। নারীদের লাইটওয়েট ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছেন আয়ারল্যান্ডের কেলি হ্যারিংটন। ফাইনালে এদিন ব্রাজিলের বিয়াত্রিজ ফেরেইরাকে ৫-০ ব্যবধানে হারিয়ে এ পদক জিতে নেন তিনি। এ ইভেন্টে থাইল্যান্ডের সুদাপর্ন সেশনডি ও ফিনল্যান্ডের মিরা পতকোনেন পেয়েছেন ব্রোঞ্জ।

সাইক্লিং ট্র্যাকে নারীদের ওমনিয়াম ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছেন আমেরিকার জেনিফার ভেলেন্তি। ফাইনাল রাউন্ডে এদিন ১২৪ পয়েন্ট পেয়ে প্রথম হন তিনি। ১১০ পয়েন্ট নিয়ে জাপানের কাজিহারা ইউমি জিতেছেন রৌপ্যপদক। ব্রোঞ্জ জিতেছেন নেদারল্যান্ডসের কারস্টেন উইল্ড।

জিমন্যাস্টিক রিদমিকে নারীদের গ্রুপ অলরাউন্ড ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছে বুলগেরিয়া। ফাইনাল রাউন্ডে এদিন ৯২.১০০ পয়েন্ট পেয়ে স্বর্ণ জয় করে দলটি। ৯০.৭০০ পয়েন্ট নিয়ে রৌপ্য জিতেছে রাশিয়ান অলিম্পিক কমিটি। ব্রোঞ্জপদক পেয়েছে ইতালি।

সাইক্লিং ট্র্যাকে নারীদের স্প্রিন্ট ইভেন্টে স্বর্ণ জিতেছেন কানাডার কেলসি মিচেল। ফাইনালে এদিন ইউক্রেনের ওলেনা স্তারিকোভাকে হারিয়ে এ পদক জিতে নেন তিনি। ১০.৯০৬ সেকেন্ডে প্রথম রেস এবং ১০.৯৯৫ সেকেন্ডে দ্বিতীয় রেস শেষ করেন এ কানাডিয়ান। হংকংয়ের লি ওয়াই সজি জিতেছেন ব্রোঞ্জ। সাইক্লিং ট্র্যাকে পুরুষদের কেইরিন ইভেন্টে স্বর্ণপদক জিতে নিয়েছে গ্রেট ব্রিটেনের জ্যাসন কেনি। ফাইনাল রাউন্ডে এদিন ঘণ্টায় ৬৮.৬৯৬ গতিতে ১০.৪৮১ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হয়েছেন এ ব্রিটিশ সাইক্লিস্ট। তার চেয়ে ০.৭৬৩ সেকেন্ড বেশি সময় নিয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন মালয়েশিয়ার আজিজুল হাসনি আওয়াং। নেদারল্যান্ডসের হ্যারি লিভারিসেন ব্রোঞ্জ জিতেছেন।

অ্যাথলেটিকসে পুরুষদের ম্যারাথনে স্বর্ণপদক জিতেছেন কেনিয়ার ইলিউড কিপচোগ। ২ ঘণ্টা ৮ মিনিট ৩৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হন এ কেনিয়ান। তার চেয়ে ১ মিনিট ২০ সেকেন্ড সময় বেশি নিয়ে রৌপ্যপদক জিতেছেন নেদারল্যান্ডসের আব্দি নাগেয়ি। বেলারুশের বশির আব্দি জিতেছেন ব্রোঞ্জ। নারীদের ম্যারাথনেও এবার স্বর্ণ জিতেছে কেনিয়া। শুধু ম্যারাথন দৌড়ের জন্য অ্যাথলেট তৈরি করে কেনিয়া। এবারো তারা প্রত্যাশা অনুযায়ী সেরাই হয়েছে।

রি-এসএস/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়