বাংলাদেশের সবচেয়ে কালিমালিপ্ত অধ্যায় ৭৫ এর আগস্ট: কাদের

আগের সংবাদ

আজকের সংবাদপত্র পর্যালোচনা

পরের সংবাদ

কঠোর বিধিনিষেধ থেকেও নেই

প্রকাশিত: আগস্ট ৫, ২০২১ , ১০:২১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৫, ২০২১ , ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ

আগামী ১০ আগস্ট পর্যন্ত চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। তবে প্রথম ১৪ দিনের বিধিনিষেধের শেষ দিনে আজ বেশ ঢিলেঢালাভাবেই অতিবাহিত হচ্ছে। গণপরিবহন ছাড়া সব ধরনের যানবাহন স্বাভাবিকভাবে চলছে। নগরীর বিভিন্ন স্থানের পরিস্থিতি দেখে মনে হয় ‘কঠোর বিধিনিষেধ’ থেকেও নেই। নগরীর বেশিরভাগ সরকারি বাহিনীর তৎপরতা কম দেখা গেছে।

যাত্রাবাড়ী মোড়ে গাড়ির চাপে সকাল থেকেই যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। যানবাহন এবং মানুষের চাপে কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকরে এখানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা দেখানোর কোনো সুযোগই ছিলো না। যানজট নিয়ন্ত্রণে ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদের হিমশিম খেতে দেখা যায়। যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তা এলাকায় একেবারেই স্বাভাবিক সময়ের মতো অবস্থায় রয়েছে। গণপরিবহন ছাড়া অন্য সব ধরনের পরিবহন এখানে চলাচল করছে। আশেপাশের কাঁচাবাজার সহ অনেক দোকানপাটই খুলেছে এবং কেনাবেচা চলছে। এখানে স্বাস্থ্যবিধি মানার ব্যাপারে কারো মাঝে কোন সচেতনতা দেখা যায়নি।

লকডাউনে বিধিনিষেধ নেই বললেই চলে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে তোলা। ছবি: ভোরের কাগজ

ফার্মগেট থেকে কাওরানবাজার, এয়ারপোর্ট রোড, গাবতলী, মোহাম্মদপুর, মালিবাগ, রামপুরা, মতিঝিল, সায়দাবাদ, খিলগাঁও শহর সব এলাকায় যানবাহনের চাপে সকাল থেকেই থেমে থেমে যানজট হচ্ছে।

রাজধানীর গাবতলী, উত্তরা আব্দুল্লাহপুর, পুরান ঢাকার বাবুবাজার ব্রিজ, ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের সাইনবোর্ড থেকে যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত মানুষ এবং যানবাহনের প্রচন্ড ভিড় রয়েছে। রাজধানীতে প্রবেশের এই সবগুলো পথ দিয়েই লোকজন অবাধে আসা-যাওয়া করছে। এই সব প্রবেশ পথে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত থাকলেও ঢিলেঢালাভাবেই বিধিনিষেধের ১৪তম দিন শুরু হয়েছে।

আজও দেশের বিভিন্ন মহাসড়কে যানবাহনের চাপ রয়েছে। ঢাকা -আরিচা, ঢাকা-টাঙ্গাইল, ঢাকা ময়মনসিংহ এবং ঢাকা মহাসড়কে যানবাহনের চাপ রয়েছে। গণপরিবহন চলাচল বন্ধ থাকলেও অন্য সব ধরনের যানবাহন স্বাভাবিকভাবে চলাচল করছে।

দেশের প্রধান দুই প্রধান ফেরিঘাট মুন্সীগঞ্জে শিমুলিয়া এবং মানিকগঞ্জের দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় যানবাহন এবং মানুষের চাপ কম থাকায় ভিড় নেই বলে জানা গেছে। মানুষের চাপ কম থাকে পণ্যবাহী ও জরুরি পরিবহনগুলোর সহজেই ফেরি পার হতে পারছে।

ডি-এফবি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়