পরী মনি আটক, বাসা থেকে আইস-এলএসডি মাদক উদ্ধার

আগের সংবাদ

পরী মনি: অভিনয়ের চেয়ে বেশি সমালোচিত

পরের সংবাদ

যেসব কারণে বিতর্কিত পরী মনি

প্রকাশিত: আগস্ট ৪, ২০২১ , ৬:২৫ অপরাহ্ণ আপডেট: আগস্ট ৪, ২০২১ , ৬:২৭ অপরাহ্ণ

মডেল পিয়াসা ও মৌয়ের গ্রেপ্তারের পরই গুঞ্জন চলছিল চিত্রনায়িকা পরী মনির গ্রেপ্তার না হওয়া নিয়ে। কারণ, গ্রেপ্তার ওই দুই মডেলের মতোই নানান অভিযোগ রয়েছে একাধিক ফ্লপ ছবির এ নায়িকার। তবে বুধবার (৪ আগস্ট) বিকালে সব কিছুর অবসান ঘটিয়ে পরী মনির বাসায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব সদস্যরা।

বোট ক্লাব কাণ্ডে নতুন করে আলোচনায় আসা বিতর্কিত এই নায়িকাকে ঘিরে অভিযোগের শেষ নেই। তার বাসায় অবৈধভাবে বিপুল পরিমাণ বিদেশী মদ রাখার অভিযোগ রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে একাধিক বিয়ের অভিযোগসহ ধনীর দুলালদের সঙ্গে সখ্য গড়ে দেশে-বিদেশে ঘুরে বেড়ানো ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ। আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পুরনো।

গত বছর ২৪শে জুন তার সাদা রঙের হ্যারিয়ার গাড়িটি দুর্ঘটনায় দুমড়ে মুচড়ে যায়। এর ২৪ ঘণ্টা পার হতে না হতেই তিনি প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকার রয়েল ব্লু-রঙের মাসেরাতি গাড়ি কেনেন। সাড়ে ৩ কোটি টাকায় কেনা গাড়ির বিষয়টিও তাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে তোলো।

পরী মনির ছবি পরিচালনাকারী এক পরিচালকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গভীর রাতে পরী মনি বিভিন্ন ক্লাবে ঘুরে বেড়াতেন। তার বাসায়ও একটি মিনি বারের মতো জায়গা রয়েছে। ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ ক্লাবগুলোতে সদস্য ছাড়া প্রবেশের কোনো অনুমতি না থাকলেও ওইসব ক্লাবগুলোতে তিনি নিয়মিত যাতায়াত করতেন।

বুধবার বিকেলে ফেসবুক লাইভে আসেন অভিনেত্রী পরী মনি। ছবি: ফেসবুক থেকে

গত মাসের ১৩ জুন রাতে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেন এ নায়িকা। তবে এ সময় অনেকেই পরী মনির বাসাতে ঢুকে শুরুতেই দ্বিধায় পড়ে যান যে নায়িকার বাসায় নাকি কোনো বার। কারণ, ড্রইংরুমে ঢুকতেই হাতের বাম পাশে দেখা যাবে কাচঘেরা বিশাল একটি ঘর। স্বচ্ছ কাচেঘেরা এ রুমে সাজানো সারি সারি বিদেশি ব্রান্ডের মদের বোতল। সুন্দর ডেকোরেশনের নানা সাইজের র‌্যাকে সারি সারি বোতল দাঁড়িয়ে আছে। আবার কিছু বোতল কাত করে শুইয়ে রাখা হয়েছে। ছোট ছোট টেবিলের ওপরও রাখা আছে বোতল। চকচকে-ঝকঝকে এসব মদের বোতল গুনে শেষ করার মতো নয়।

অনলাইন জুয়া ও ক্যাসিনো ব্যবসার মূল হোতা সেলিম প্রধানের সঙ্গেও তার ছিল সখ্যতা। তার বাসায় জমানো আসরে প্রায়ই যেতেন এ নায়িকা।

আজ বুধবার বিকেলের দিকে পরী মণির বনানীর লেক ভিউ ১৯/এ নম্বর রোডের ১২ নম্বর বাড়িতে এ অভিযান শুরু হয়। তবে অভিযান চলাকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লাইভে যান পরী মনি। একপর্যায়ে তার বাসার বারান্দায় এসে নিচে দায়িত্ব পালনরত সাংবাদিকদের উপরে ওঠার জন্য ডাকতে থাকেন।

র‌্যাব লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক খন্দকার আল মঈন বলেন, সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে চিত্রনায়িকা পরী মনির বাসায় র‌্যাবের অভিযান চলছে। অভিযান শেষে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়