স্ত্রীকে পিঠে বেঁধে মোটরসাইকেলে করে হাসপাতালের খোঁজে রাজু

আগের সংবাদ

টিকা নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে সরকার: মির্জা ফখরুল

পরের সংবাদ

সিআরবি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে চট্টগ্রাম নাগরিক সমাজের স্মারকলিপি পেশ

প্রকাশিত: জুলাই ২৮, ২০২১ , ১০:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৮, ২০২১ , ১০:১৬ অপরাহ্ণ

নগরীতে অবারিত মুক্ত বাতাস, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, মুক্তিযুদ্ধ ও বৃটিশ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম ঐতিহাসিক স্থান সিআরবি রক্ষার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নানা যুক্তি তুলে ধরে সেখানে কোন হাসপাতাল নির্মান না করার জন্য আকুল আবেদন জানিয়ে স্মারকলিপি পাঠানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ও বিশেষ সহকারির ইমেইলে এ আবেদন পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি সিআরবি রক্ষার আন্দোলনকে বেগবান ও সঠিকভাবে পরিচালিত করার জন্য আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেনকে চেয়ারম্যান এবং চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য এ্যাডভাকেট ইব্রাহিম হোসেন বাবুলকে সদস্য সচিব করে এক হাজার সদস্যের একটি নাগরিক কমিটিও গঠন করা হয়েছে। কমিটির নাম দেয়া হয়েছে “নাগরিক সমাজ-চট্টগ্রাম”।

চট্টগ্রামের ফুসফুস নামে খ্যাত সিআরবি (সেন্ট্রাল রেলওয়ে বিল্ডিং) এলাকায় ইউনাইটেড গ্রুপের সঙ্গে পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশীপের ভিত্তিতে একটি হাসপাতাল, মেডিকেল কলেজ ও নার্সিং ইনস্টিটিউট করার যে প্রকল্প সরকার নিয়েছে তা বাতিলের দাবিতে ইতিমধ্যেই চট্টগ্রামে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নাগরিকগন তীব্র প্রতিবাদ, আন্দোলন সংগ্রাম গড়ে তুলেছেন।

মানব বন্ধন, বিক্ষোভ সমাবেশ, প্রতিবাদী গান, অভিনয় ইত্যাদির মাধ্যমে এ আন্দোলন চলে আসছে। আজ নাগরিক সমাজ-চট্টগ্রাম নামে গঠিত এই কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে স্মারকলিপি পেশ করা হয়। বৃহস্পতিবার ফ্যাক্স, ডাকযোগে এবং চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসকের মাধ্যমেও এই স্মারকলিপি প্রধানমন্ত্রীর বরাবর পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন কবি সাংবাদিক কামরুল হাসান বাদল।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো স্মারকলিপিতে প্রধানমন্ত্রীর প্রকৃতিপ্রেম, চট্টগ্রামের উন্নয়নের জন্য তাঁর অবদানের প্রশংসা করে কি কি কারনে সিআরবি’তে হাসপাতাল নির্মান না করার অনুরোধ করা হয়েছে তার বিবরন তুলে ধরা হয়।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে এতে বলা হয়, “আপনার প্রকৃতি প্রেম, প্রকৃতি বান্ধবতা বিশ্ববিদিত। ২০২১ সালের ২২শে এপ্রিল “লিডার্স সামিট অন ক্লাইমেট” এ প্রকৃতি নিয়ে যে ৪০ জন বিশ্ব নেতা বক্তব্য রেখেছেন সেখানে আপনি কার্বণ নিঃসরণ হ্রাসের মাধ্যমে বিশ্বের প্রাকৃতিক উষ্ণতা যেন বর্তমান পর্যায় থেকে দেড় শতাংশের বেশি না বাড়ে তা দাবী করে যে আহবান জানিয়েছেন তা বিশ্ব নন্দিত হয়েছে।

বলা বাহুল্য, আপনি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় দীর্ঘকাল ধরে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এই উদ্যোগেরই অংশ হিসেবে আপনার নেতৃত্বে আজ যেখানে বাংলাদেশ জুড়ে বিপুলভাবে বৃক্ষ রোপণের বিরাট উদ্যোগ শুরু হয়েছে, সেখানে বোটানিকাল গার্ডেনের মতো বিভিন্ন প্রজাতির অসংখ্য শতবর্ষী বৃক্ষরাজি শোভিত চট্টগ্রামের ফুসফুস খ্যাত সিআরবি এলাকায় যদি বিত্তবানদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের জন্য একটি মুনাফাভিত্তিক বেসরকারি হাসপাতাল নির্মিত হয় তার চেয়ে বেদনাদায়ক ঘটনা আর কি হতে পারে!”

এরই পাশাপাশি বলা হয়, “বাঙালির হাজার বছরের ইতিহাসের সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বাঙালির স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা। এই মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদ হিসেবে আত্মোৎসর্গ করেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯৭১ সালের ছাত্র সংসদের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক শহীদ আব্দুর রব। তাঁর এবং আরো ৮ জন শহীদের সমাধিস্থল এই সিআরবি এলাকা। বাঙালির শ্রেষ্ঠ সন্তান এসব বীর শহীদদের গৌরব স্মৃতি এখানে অম্লান ও অক্ষুন্ন থাকুক এই আমাদের কামনা।”

চট্টগ্রামের বিশিষ্ট ২৫ জন নাগরিকের স্বাক্ষরিত এই স্মারকলিপিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তারা বলেন, “আপনার কাছে চট্টগ্রামের সর্বস্তরের মানুষের পক্ষ থেকে আমরা আকুল আবেদন জানাচ্ছি, চট্টগ্রামের শেষ প্রকৃতি-ঋদ্ধ স্থান সিআরবিকে রক্ষা করুন। আপনার মহতী নেতৃত্বে বাংলাদেশ একটি মানবিক, পরিবেশ সমৃদ্ধ উন্নত দেশে পরিণত হোক, এই কামনা করি। আপনার জয় হোক।”

স্মারকলিপিতে সমাজবিজ্ঞানী ও আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন, শহীদ জায়া-লেখিকা বেগম মুশতারী শফি, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক, দৈনিক পূর্বকোন সম্পাদক ডা. ম রমিজউদ্দীন, বিশিষ্ট চিত্রশিল্পী অধ্যাপক আবুল মনসুর, বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক-সাংবাদিক আবুল মোমেন, চট্টগ্রাম মহানগর অঅওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব্বুদ্দিন চৌধুরী স্বাক্ষর করেন।

এছাড়া বিশিষ্ট মানবাধিকার সংগঠক এ্যাডভোকেট রানা দাশগুপ্ত, মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মাহফুজুর রহমান, বিজয়মেলা পরিষদের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুছ, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এ্যাড. ইব্রাহিম হোসেন বাবুল, চট্টগ্রাম পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ’র সভাপতি ডা. এ কিউ এম সিরাজুল ইসলামসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মোট ২৫ জন বিশিষ্ট নাগরিক উক্ত স্মরকলিপিতে স্বাক্ষর প্রদান করেন।

ডি-ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়