জাসদকে মাস্ক ও ইনফায়েড থার্মোমিটার উপহার চীনা কমিউনিস্ট পার্টির

আগের সংবাদ

সমৃদ্ধ আগামীর প্রতিচ্ছবি সজীব ওয়াজেদ জয়: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

পরের সংবাদ

পশ্চিমবঙ্গ জয়ের পর মোদীর সঙ্গে মমতার প্রথম বৈঠক

প্রকাশিত: জুলাই ২৭, ২০২১ , ৬:৫১ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২৭, ২০২১ , ৬:৫৩ অপরাহ্ণ

পশ্চিমবঙ্গ জয়ের পর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে প্রথম বৈঠক করেছেন তৃণমূল প্রধান ওই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আধঘণ্টার বেশি সময় ধরে চলা এ বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নাম পরিবর্তন, পেগাসাস বিতর্ক ও করোনায় আরও বেশি চিকিৎসা সামগ্রীর দাবিসহ রাজ্যের নানা দাবি দাওয়া নিয়ে কথা হয়েছে। তবে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উপনির্বাচন নিয়ে কথা হয়নি। খবর আনন্দবাজার পত্রিকা ও হিন্দুস্তান টাইমসের।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চারদিনের এই দিল্লি সফরের দ্বিতীয় দিন পার করেন একঝাঁক কর্মসূচি নিয়ে। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) বিকাল ৪টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ।

বৈঠক শেষে মমতা সাংবাদিকদের বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য সময় চেয়েছিলাম। তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা হয়নি। দু’বছর পর দিল্লিতে এলাম। সৌজন্য সাক্ষাৎ এটা। নির্বাচনের পর প্রোটোকল মেনে দেখা করেছি। সেইসঙ্গে করোনার বিষয়ে আলোচনা করেছি। বাড়তি করোনা টিকা, ওষুধ চেয়েছি। জনসংখ্যার তুলনায় কম পেয়েছি আমরা। সম্ভাব্য তৃতীয় ঢেউয়ের আগে সবাইকে টিকা দিতে চাই।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক ভালো হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী তাঁর সমস্ত কথা শুনেছেন। তার দাবিগুলো খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন। তবে উপ নির্বাচন নিয়ে কথা হয়নি।

তৃণমূলের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় বিরোধী শক্তিগুলিকে একজোট করাই এই সফরের লক্ষ্য। বিজেপির বিরুদ্ধে অবিজেপি ধর্মনিরপেক্ষ দলগুলিকে একজোট হওয়ার ডাক দিয়েছিলেন মমতা। তারই প্রথম পদক্ষেপ এই দিল্লী সফর। মমতার এই সফর চারদিনের। এঁর মধ্যেই মঙ্গলবার কংগ্রেস নেতা এবং মধ্যপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা। দেখা করেন কংগ্রেস নেতা আনন্দ শর্মার সঙ্গেও।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়