ঈদে পর্যটনের ক্ষতি ২৫০ কোটি টাকার বেশি

আগের সংবাদ

'টাইগার' হতে দিনকে রাত করছেন সালমান

পরের সংবাদ

এবার ঢাকা ফেরার যুদ্ধ শুরু

প্রকাশিত: জুলাই ২২, ২০২১ , ১২:০৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ২২, ২০২১ , ১২:০৯ অপরাহ্ণ

ঈদ শেষে এবার ঢাকায় ফেরার যুদ্ধ শুরু হয়েছে। ঈদের রেশ কাটতে না কাটতেই আজ বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) সকাল থেকে মানুষ ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছে। এ কারণে জেলা শহরগুলোতে বাস টার্মিনাল ও রেল স্টেশনে মানুষের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে। তবে সকালের দিকে সড়ক-মহাসড়কে ঢাকামুখী যানবাহন ও মানুষের তেমন প্রভাব পড়েনি। দুপুরের পর থেকে এই চাপ বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, আগামীকাল শুক্রবার সকাল ৬টা থেকেই আবারো কঠোর বিধিনিষেধ কার্যকর হবে। তারপরেও সরকারি-বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত অনেক প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাই বিধি-নিষেধের আওতার বাইরে থেকে কর্মস্থলে যেতে হবে। এসব প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের যারা ঢাকা ছেড়েছেন, তাদেরকে আজকে ঢাকায় ফিরতে হবে। তাই সকাল থেকেই তারা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে সকাল থেকেই দূরপাল্লার বাসগুলো যাত্রী নিয়ে ঢাকায় ফিরছে। ঢাকা-আরিচা এবং ঢাকা মাওয়া মহাসড়ক দিয়েও লোকজন ঢাকায় ফিরছে। তবে সকাল ১১টা পর্যন্ত সড়ক-মহাসড়কে তেমন চাপ ছিলো না। খুব স্বাভাবিক ভাবেই সব যানবাহন নির্বিঘ্নে ঢাকায় ফিরছে। কোথাও কোন যানজট নেই। তবে দুপুরের পর থেকে সড়ক মহাসড়কে যানবাহন এবং মানুষের চাপ বাড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাজধানীর মহাখালী, গাবতলী বাস টার্মিনালে সকালের দিকে অল্প কিছু বাস যাত্রী নিয়ে বিভিন্ন জেলা থেকে এসেছে। এসব বাসে যাত্রী সংখ্যা কম ছিলো। মহাসড়কে কোন যানজট না থাকায় অল্প সময়ের মধ্যেই ঢাকায় চলে আসা সম্ভব হচ্ছে।

এদিকে আজ সকালে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া এবং মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাট যানবাহনের চাপ একেবারেই ছিলো না। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানবাহন এবং মানুষের ভিড় বাড়তে শুরু করেছে।

এবারের বিধিনিষেধ আগের তুলনায় বেশি কড়াকড়ি হবে বলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন আগেই ঘোষণা দিয়েছেন। সেনাবাহিনী আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি মাঠে থাকবে। এবারের ঈদে ৮২ লাখ ৬৭ হাজার মানুষ ঢাকা ছেড়েছে। কিন্তু ঢাকায় ফেরার জন্য সময় মাত্র একদিন। যাদের প্রয়োজন রয়েছে তাদের আজকের মধ্যেই ফিরতে হবে। এই অল্প সময়ের মধ্যে বিপুল সংখ্যক মানুষ কিভাবে ঢাকায় ফিরবে তা নিয়েই এখন ব্যাপক জল্পনা-কল্পনা চলছে। প্রায় ৮৩ লাখের তিন ভাগের এক ভাগ মানুষ যদি ঢাকায় আজকের মধ্যে ফিরতে চায় তাহলে সব জায়গায় এক চরম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হবে। বাস, ফেরি ও সড়কে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি পুরোপুরি ভেঙে পড়বে। এর ফলে করোনার সংক্রমণ ভয়াবহ আকার ধারণ করবে বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা আশঙ্কা করেছেন।

ডি-এফবি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়