ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষা তিন বছর করায় প্রতিবাদ

আগের সংবাদ

লিটন-তামিমকে হারিয়ে চাপে টাইগাররা

পরের সংবাদ

নানা পদক্ষেপে পোশাকশিল্প বৈশ্বিক স্বীকৃতি অর্জন করেছে

প্রকাশিত: জুলাই ১৮, ২০২১ , ৮:৪২ অপরাহ্ণ আপডেট: জুলাই ১৮, ২০২১ , ৮:৪২ অপরাহ্ণ

পোশাকশিল্পে নিরাপত্তা, টেকসই উন্নয়ন ও শ্রমিকদের কল্যাণে পদক্ষেপ নেয়ার কারণে আজ আমরা বৈশ্বিক স্বীকৃতি অর্জন করেছি। আজ এ শিল্পটি কমপ্লায়েন্স ও শ্রম অধিকারের সব ইস্যুতেই নিবিড়ভাবে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন পোশাক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি ফারুক হাসান।

রবিবার (১৮ জুলাই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিজিএমইএর পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, অন্তর্ভূক্তমূলক ব্যবসা বিষয়ের ওপর অনুষ্ঠিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান। ডাচ-বাংলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (ডিবিসিসিআই) স্থানীয় একটি হোটেলে এ সংক্রান্ত সেমিনারের আয়োজন করে।

ফারুক হাসান বলেন, করোনা অতিমারির সময়ও যেন জীবন ও জীবিকার মধ্যে সমন্বয় সাধন করে শ্রমিকদেরকে করোনা সংক্রমণ থেকে রক্ষা করা যায়, সে বিষয়েও বিজিএমইএ অনেকগুলো পদক্ষেপ নিয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, আইএলও ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শের আলোকে বিজিএমইএ সদস্যভূক্ত কারখানাগুলোর জন্য স্বাস্থ্যবিধি-প্রটোকল প্রণয়ন করেছে এবং পোশাক কারখানাগুলো কঠোরভাবে এই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিচালিত হচ্ছে। কারখানাগুলো যথাযথভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে কি না তা বিজিএমইএ থেকেও প্রতিনিয়ত নিবিড়ভাবে মনিটরিং করা হচ্ছে। পোশাক শিল্পের শ্রমিক ভাইবোনদের সংক্রমণ পরীক্ষায় বিজিএমইএ গাজীপুরের চন্দ্রায় বিশ্বমানের পিসিআর ল্যাব স্থাপন করেছে। এ ল্যাবে শ্রমিক ভাইবোনেরা স্যাম্পল পরীক্ষা করছেন।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন, ২০১৩ সালে রানা প্লাজা ভবন ধসের পর আমাদের সরকারের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে শিল্পে স্থাপত্য, অগ্নি ও বৈদ্যুতিক নিরাপত্তা ক্ষেত্রে অনন্য অগ্রগতি সাধিত হয়েছে, যাতে আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডগুলো, আইএলও এর মতো দাতাসংস্থা সহায়তা দিয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সরকারের তত্ত্বাবধানে কেন্দ্রীয় তহবিল গঠিত হয়েছে, যেখানে শ্রমিকদের কল্যাণে ব্যয় করার জন্য পোশাক কারখানাগুলো তাদের রফতানি আয় প্রাপ্তির বিপরীতে ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিচ্ছে।

ফারুক হাসান বলেন, বাংলাদেশের পোশাক শিল্প নিরাপত্তা, টেকসই উন্নয়ন ও শ্রমিকদের কল্যাণে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য বৈশ্বিক স্বীকৃতি অর্জন করেছে। হংকংভিত্তিক সাপ্লাই চেইন কমপ্লায়েন্স সল্যুশনস প্রোভাইডার, কিউআইএমএ তার সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে বাংলাদেশকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ইথিক্যাল ম্যানুফ্যাকচারিং দেশ হিসেবে স্থান দিয়েছে। তৈরি পোশাক শিল্পে সবুজ শিল্পায়নে অনন্য নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য বিজিএমইএ’ ২০২১ ইউএসজিবিসি লিডারশিপ অ্যাওয়ার্ড’ সম্মাননায় ভূষিত হয়েছে।

রি-এমজে/ ডি-আরআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়