আপনি বিএনপির কে? জাফরুল্লাহকে ছাত্রদল নেতা

আগের সংবাদ

রবীন্দ্রসঙ্গীত কি আপনিই লিখবেন, ফেসবুকে শ্রীজাতকে সাহানা

পরের সংবাদ

শিক্ষকদের বেতন না দিলে অধিভুক্তি বাতিল: উপাচার্য

প্রকাশিত: জুন ২৬, ২০২১ , ৭:১০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ২৬, ২০২১ , ৭:১৩ অপরাহ্ণ

যেসব কলেজ শিক্ষকদের বেতন দিচ্ছে না, সেগুলোর অধিভুক্তি বাতিল করা হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. মশিউর রহমান।

শনিবার (২৬ জুন) দুপুরে সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মুরসালিন নোমানী ও সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান খান।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নবনিযুক্ত এই উপাচার্য বলেন, কলেজ প্রতিষ্ঠার সময় প্রতিটি শিক্ষকের বেতন কলেজ থেকে দেয়া হবে বলে অঙ্গীকার করা হয়। এরপরও বহু কলেজ শিক্ষকদের বেতন দিচ্ছে না। তিনি বলেন, এ বিষয়ে প্রতিটি কলেজে চিঠি দিয়েছি, যেসব কোর্সের শিক্ষকদের বেতন দেয়া হচ্ছেনা, ওই বিষয়ের কোর্সটির অধিভুক্তি বাতিল করা হবে। তবে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেই বিষয়টি মাথায় রেখে এটি করা হবে।

মহামারীকালে সেশনজট দূর করতে পরীক্ষা ছাড়াই পরবর্তী বর্ষে ক্লাস নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে জানিয়ে অধ্যাপক মশিউর বলেন, শিক্ষার্থীরা যাতে এক ক্লাসে ২-৩ বছর আটকে না থাকে, তাদেরকে পরবর্তী ক্লাসে উন্নীত করা হয়েছে। তার মানে, তাদের অটোপ্রমোশন দেয়া হয়নি। পরিস্থিতি ভালো হলে আমরা তাদের পরীক্ষাগুলো নেব।

অনলাইনে ক্লাস ও অনলাইন পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, গত বছর আমরা বৈঠকে বসেছিলাম এবং সেখানে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল শিক্ষার্থীদের জন্য প্রতিটি কোর্সে ১০টি করে লেকচার আমরা অনলাইনে আপলোড দেব। সেই হিসাবে প্রায় ১৩ হাজার লেকচার হয়। এর মধ্যেই আমরা প্রায় সাত হাজার লেকচার আপলোড দিয়েছি এবং বাকিগুলো শিক্ষকদের কাছ থেকে পেলে ধীরে ধীরে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, যদি অনলাইনে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না হয়, তবে অনলাইনে ক্লাস যেমনভাবে চালিয়ে যাচ্ছি, তা চালিয়ে যাব এবং পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হলেই প্রয়োজনে জেলা শহরগুলোতে কেন্দ্রের সংখ্যা বাড়িয়ে পরীক্ষা নিয়ে নেব। এতে সেশনজটও কমবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত স্নাতক কলেজে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির বিষয়ে উপাচার্য বলেন, যেসব শিক্ষার্থী এইচএসসি পাস করে বসে আছে, ভর্তি হতে পারছে না তাদের জন্য আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করছি অনলাইনে ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে। অনলাইনে যদি ভর্তি কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পারি তাহলে আমরা অতি শিগগিরই নতুন শিক্ষার্থীদের নিয়ে অনলাইনে ক্লাস শুরু করব।

রি-আর/ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়