মুজিববর্ষ উপলক্ষে আজ ঘর পাচ্ছে আরও ৫৩ হাজার ছিন্নমূল পরিবার

আগের সংবাদ

কবি সুফিয়া কামালের ১১০তম জন্মদিন আজ

পরের সংবাদ

বিশ্ব বাবা দিবস আজ: আরও দৃঢ় হোক পারিবারিক বন্ধন

প্রকাশিত: জুন ২০, ২০২১ , ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ২০, ২০২১ , ১:০৯ পূর্বাহ্ণ

পরম নির্ভরতার প্রতীক বাবা। ভরসা ও ছায়ার নাম বাবা। বাবা শাশ্বত, চির আপন। কবির ভাষায়, ‘ঝিনুক নীরবে সহো/ ঝিনুক নীরবে সহো,/ ঝিনুক নীরবে সহে যাও/ ভিতরে বিষের বালি, মুখ বুঁজে মুক্তা ফলাও!’ কবি আবুল হাসানের সেই ঝিনুকটিই যেন বাবা। সব কষ্ট একা বুকে বয়ে বেড়ান। সন্তানকে বুঝতে দেন না। ভাষাভেদে হয়তো শব্দ বদলায়, স্থানভেদে বদলায় উচ্চারণও। কিন্তু বদলায় না রক্তের টান। আমেরিকায় যিনি ড্যাড, বাংলায় তিনি পিতা। ফারসিতে বাবা। সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য নিজের বর্তমানকে হাসিমুখে উৎসর্গ করা এই বাবাদের আজ আলাদাভাবে স্মরণ করার দিন। বাবার প্রতি সন্তানের চিরন্তন ভালোবাসার প্রকাশ প্রতিদিনই ঘটে। অবশ্য বাবার জন্য বিশেষ দিন হিসেবে প্রতিবছর বিশ্ব বাবা দিবস পালিত হয়ে আসছে। প্রতিবছর জুন মাসের তৃতীয় রোববার এই দিবস উদযাপন করা হয়। আজ রবিবার বিশ্ব বাবা দিবস।

নিঃসন্দেহে বাবা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ উপহারগুলোর একটি। সন্তানের সব বায়নাই মায়ের কাছে। এটা চাই, ওটা দাও। মা এসব আবেদন-নিবেদন শোনেন। আর অনেকটা বাস্তবায়ন করেন বাবা। বাবা-মায়ের দিন-রাত পরিশ্রম, খাটুনি। এর সামান্যও নিজের জন্য নয়; বরং সন্তানের মুখে হাসি ফোটানোর সব চেষ্টা করেন তিনি। বাবাদের ভেঙে পড়তে নেই। কাঁদতে মানা। কারণ, বাবা কাঁদলে, বাবা ভেঙে পড়লে সন্তানদের আর আশা থাকে না।

ছবি: শিল্পী সমর মজুমদার

শুরুর দিকে বাবা দিবস বেশ টানাপোড়েনের মধ্য দিয়েই পালিত হতো! মা দিবস নিয়ে মানুষ যতটা উৎসাহ দেখাতো, বাবা দিবসে মোটেও তেমনটা দেখাতো না, বরং বাবা দিবসের বিষয়টি তাদের কাছে বেশ হাস্যকরই ছিল। ধীরে ধীরে অবস্থা পাল্টায়, ১৯১৩ সালে আমেরিকান সংসদে বাবা দিবসকে ছুটির দিন ঘোষণা করার জন্য একটা বিল উত্থাপন করা হয়। ১৯২৪ সালে তৎকালীন আমেরিকান প্রেসিডেন্ট ক্যালভিন কুলিজ বিলটিতে পূর্ণ সমর্থন দেন।

অবশেষে ১৯৬৬ সালে প্রেসিডেন্ট লিন্ডন বি. জনসন বাবা দিবসকে ছুটির দিন হিসেবে ঘোষণা করেন। বিশ্বের বেশিরভাগ দেশে জুন মাসের তৃতীয় রোববার বাবা দিবস হিসেবে পালিত হয়। আর ১৯০৮ সালের ৫ জুলাই আমেরিকার পশ্চিম ভার্জিনিয়ার ফেয়ারমন্টের এক গির্জায় সর্বপ্রথম বাবা দিবস উদযাপিত হয় বলে তথ্য পাওয়া যায়। বাবা দিবসকে ঘিরে নাটক, টকশোসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে রেডিও ও টিভি চ্যানেলগুলো। বাবা দিবসে শ্রদ্ধা আর ভালবাসা পূর্ণতা পাক, দৃঢ় হোক পরিবারের বন্ধন। পৃথিবীর সব বাবার প্রতি রইলো বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালবাসা।

আর-এইচবি/এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়