সারাদেশে সিনোফার্মের টিকার প্রথম ডোজ শুরু শনিবার

আগের সংবাদ

ইরানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

পরের সংবাদ

কারনেল স্টার্টআপ নিয়ে আসছে মন পড়তে পারা হেলমেট

প্রকাশিত: জুন ১৮, ২০২১ , ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ১৮, ২০২১ , ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

যুক্তরাষ্ট্রের গ্রাহকরা আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে হাতে পেতে যাচ্ছেন কারনেল নামের এক কোম্পানির বানানো হেলমেট। ৫০ হাজার ডলারের এই হেলমেটটি কঠোরভাবে কথা বলতে পারে, মানুষের মনও পড়তে পারে। এতে এমন কিছু সেন্সর ও ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার করা হয়েছে যেগুলো মস্তিষ্কের ইলেক্ট্রিক্যাল আবেগ, চিন্তার রক্ত প্রবাহের গতি পরিমাপ এবং বিশ্লেষণ করতে পারে।

এসব প্রযুক্তি এখনই দুনিয়ায় আছে। কিন্তু তা দেখতে লাখ লাখ ডলারের যন্ত্রপাতি এবং রোগীকে একটি ক্লিনিক্যাল সেট আপে নিয়ে যেতে হয়। কিন্তু কোম্পানিটি এইসব প্রযুক্তি এবার একটি হেলমেটের মধ্যেই নিয়ে আসছে। যে কেউ এই হেলমেট পরে ঘুরে বেড়াতে পারবে।

গবেষকরা আশা করছেন এর মাধ্যমে মস্তিষ্কের পক্কতা, মানসিক অস্থিরতা, স্ট্রোকের মতো বিষয়গুলো আরও নিবিড় করে অনুসন্ধান করা যাবে। হেলমেটটি তৈরি করতে পাঁচ বছর সময় লাগিয়েছেন ব্রায়ান জনসন। ব্যয় হয়েছে প্রায় ১১ কোটি ডলার। যার অর্ধেকই নিজের টাকা আর বাকিটা তহবিল আকারে সংগ্রহ করেছেন তিনি। কারনেল নামের এই স্টার্টআপ কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনসন।

কারনেলের প্রথম দিকের হেলমেটগুলো মস্তিষ্ক গবেষণা প্রতিষ্ঠানকে টার্গেট করে বানানো হয়েছে। মানুষ কিভাবে পণ্য নিয়ে চিন্তা করে তা যেসব কোম্পানি দেখতে চান তারাই মূলত এসব হেলমেট ব্যবহার করবেন। জনসন বলছেন ২০৩০ সাল নাগাদ তারা এই হেলমেটের দাম একটা স্মার্টফোনের দামে নামিয়ে আনতে চায়।

জনসন জানান, এই হেলমেট ব্যবহারকারীরা তাদের মানসিক স্বাস্থ্যকে গুরুত্বের সঙ্গে নিতে পারবে, এমনকি আমেরিকারন রাজনৈতিক মেরুকরণের মূল কারণও জানতে পারবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়