নিউজ ফ্ল্যাশ

আগের সংবাদ

প্রশাসনে ৩ লাখ ৮০ হাজার পদ শূন্য

পরের সংবাদ

গার্ড অব অনার নিয়ে দুই নারী ইউএনওর প্রতিক্রিয়া

প্রকাশিত: জুন ১৫, ২০২১ , ৮:৫৪ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ১৫, ২০২১ , ৮:৫৪ অপরাহ্ণ

মৃত্যুর পর বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গার্ড অব অনার দেওয়ার সময় নারীদের চায় না সংসদীয় কমিটি। এজন্য যেসব এলাকায় নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রয়েছেন, সেখানে বিকল্প খোঁজার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। ওই সুপারিশের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৈতী সর্ববিদ্যা ও কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিনা আক্তার। মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর গার্ড অব অনার দেয়ার বিষয়ে সংসদীয় কমিটির সুপারিশ নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে এই দুই নারী ইউএনও মুঠোফোনে তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৈতী সর্ববিদ্যা তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, কোনো বীর মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর পর তাকে রাষ্ট্রীয় সম্মানের অংশ হিসেবে ‘গার্ড অব অনার’ দেয়ার সময় সরকারের নারী কর্মকর্তাদের উপস্থিতি নিয়ে কেন এমন আপত্তি তোলা হবে। সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য কর্মকর্তা তো কর্মকর্তাই। এতে নারী-পুরুষের প্রশ্ন কেন আসবে। সরকারের একজন কর্মকর্তা হিসেবে নারী কিংবা পুরুষ যেই হোক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি এ সম্মান প্রদর্শন করতে পারেন বলে মনে করেন এই নারী কর্মকর্তা।

কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিনা আক্তার তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ইউএনও একটা প্রশাসনিক পদ, এখানে জেন্ডার কোন বিষয় নয়। রাষ্ট্রীয়ভাবে একজন মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মান জানাতে জেন্ডার কোন জটিল বিষয়ও নয়। এটাকে কেউ যদি খাটো করেন, তাহলে এটা নিত্যান্তই গ্রহণযোগ্য নয়। এটি একান্তই কোন মহলের ব্যক্তিগত মত।

তিনি বলেন, যেখানে আমাদের রাষ্ট্র প্রধান থেকে শুরু করে উচ্চপদস্থ অনেক কর্মকর্তাই নারী, সেক্ষেত্রে বিষয়টাকে এক পেশী করে দেখা উচিৎ নয়। এ বিষয়ে আমাদের নারী ইউএনওদের সাংগঠনিক কর্মকর্তারা মন্তব্য পেশ করবেন।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়