ভেনেজুয়েলাকে সহজে হারাল ব্রাজিল

আগের সংবাদ

২৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বাল্যবিয়ে

পরের সংবাদ

প্রেসিডেন্ট মীর্জার খেলা

প্রকাশিত: জুন ১৪, ২০২১ , ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ১৪, ২০২১ , ৮:৫০ পূর্বাহ্ণ

সোহরাওয়ার্দীর ঘনিষ্ঠ সহচর হওয়া সত্ত্বেও শেখ মুজিব অটোনমি ও যুক্ত নির্বাচন প্রশ্নে ওই শাসনতন্ত্রে স্বাক্ষরদান হতে বিরত থাকেন।

ইস্কান্দার মীর্জার গণতন্ত্র, গণতান্ত্রিক দল বা রাজনীতির প্রতি বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধাও ছিল না। শেরে বাংলার সঙ্গে আঁতাত করে তাকে দিয়ে আওয়ামী লীগের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি মীর্জার ক‚টনৈতিক সাফল্যের প্রমাণ।

এছাড়া কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী চৌধুরী মোহাম্মদ আলীর ক্ষমতা খর্ব করে নিজের পদ নিরঙ্কুশ করার স্বার্থে কংগ্রেস নেতা খান সাহেবকে দিয়ে ইস্কান্দার মীর্জা রিপাবলিকান পার্টি গঠন করেন। যদিও চৌধুরী মোহাম্মদ আলী ছিল একই চক্রের অন্তর্ভুক্ত।

১৯৫৬ সালে গৃহীত শাসনতন্ত্র সোহরাওয়ার্দী কিছু কিছু আপত্তি সহকারে অনুমোদন করেন। কিন্তু সোহরাওয়ার্দীর ঘনিষ্ঠ সহচর হওয়া সত্তে¡ও শেখ মুজিব অটোনমি ও যুক্ত নির্বাচন প্রশ্নে ওই শাসনতন্ত্রে স্বাক্ষরদান হতে বিরত থাকেন। তিনি ২ মার্চ পরিষদ থেকে ওয়াক আউট করেন। শাসনতন্ত্র গ্রহণের ক্ষেত্রে ভাষার প্রশ্ন, বাঙালি জাতীয়তাবাদ, শোষণ বঞ্চনার বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে পূর্ব বাংলার সংখ্যাগরিষ্ঠতা শাসনতান্ত্রিক কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে ও পূর্ণ স্বায়ত্তশাসনের প্রশ্নে গণপরিষদে শেখ মুজিব ছিলেন আপসহীন।

যেভাবে স্বাধীনতা পেলাম বইটির কভার ফটো

কেন্দ্রে ১৯৫৬ সালের ১২ সেপ্টেম্বর আওয়ামী লীগ-রিপাবলিকান কোয়ালিশন মন্ত্রিসভা গঠিত হয়। এক ইউনিটের সঙ্গে আপস করে যুক্ত নির্বাচন আদায়ের ফর্মুলায় হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী প্রধানমন্ত্রীর পদ গ্রহণ করেন। সামরিক বাহিনী আমলাচক্রের

সুবিধার্থে মীর্জার প্রয়োজন ছিল এক ইউনিট গঠন, অন্যদিকে যুক্ত নির্বাচন ব্যবস্থা পাস করা ছিল অসাম্প্রদায়িক ও গণতান্ত্রিক সোহরাওয়ার্দীর স্বার্থ।

আগামীকাল প্রকাশিত হবে
‘সোহরাওয়ার্দী-মীর্জা’
‘যেভাবে স্বাধীনতা পেলাম’- বইটি পাওয়া যাচ্ছে ভোরের কাগজ প্রকাশনে (ভোরের কাগজ কার্যালয়, ৭০ শহীদ সেলিনা পারভীন সড়ক, মালিবাগ, ঢাকা)। এছাড়া সংগ্রহ করা যাবে bhorerkagojprokashan.com থেকেও।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়