রাজধানীতে যাত্রীবেশে চলন্ত বাসে ছিনতাই

আগের সংবাদ

করোনায় অতি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ

পরের সংবাদ

সেমিতে উঠেই ব্যক্তিগত রেকর্ড বারবোরার

প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২১ , ৯:৩১ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৯, ২০২১ , ৯:৩১ অপরাহ্ণ

ফ্রেঞ্চ ওপেনের নারী এককের সেমিফাইনালে উঠাতেই ব্যক্তিগত রেকর্ড যোগ হয়েছে চেক প্রজাতন্ত্রের বারবোরা ক্রেসিকোভার নামের পাশে। এর আগে গ্রান্ডস্লাম এককের কোনো আসরেই যে শেষ চারে খেলা হয়নি ২৫ বছর বয়সি এই সুন্দরীর। নারী এককের কোয়ার্টার ফাইনালে বুধবার (৯ জুন) তিনি ৭-৬ (৮-৬) ও ৬-৩ গেমে হারিয়েছেন আমেরিকান কোকো গাফকে।

অন্যদিকে পুরুষ এককের কোয়ার্টার ফাইনালে জয় পেয়েছেন গ্রিসের স্টেফানোস সিটিসপাস। রাশিয়ার দানিল মেদভেদেভকে ৬-৩, ৭-৬ (৭-৩) ও ৭-৫ গেমে হারিয়েছেন। ফ্রেঞ্চ ওপেনে এ নিয়ে টানা দ্বিতীয়বার সেমিফাইনালে উঠলেন তিনি। ২০২০ সালে শেষ চারে তিনি হেরেছিলেন সার্বিয়ার নোভাক জোকোভিচের বিপক্ষে।

বারবোরা ক্রেসিকোভা টেনিসের গ্রান্ড স্লাম এককে এর আগে সর্বোচ্চ খেলেছেন কোয়ার্টার ফাইনালে। এবার ফ্রেঞ্চ ওপেনে সেমির টিকেট পেয়ে তাই রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এর আগে ২০১৭ সালে উইম্বলডন ওপেনে শেষ আটে খেলেছিলেন তিনি। সেখান থেকেই বিদায় নিতে হয় তাকে।

ফিলিপ ছত্রিয়ের অ্যারেনায় শুরু থেকেই গাফ ও বারবোরার মধ্য খেলা চলে সমানে সমান। একজনের ভুলে আরেকজন যেমন সুযোগ নিয়েছেন তেমনি অন্যজনও মাঝে মাঝে কোণঠাসা করেছেন দুর্দান্ত কিছু সার্ভের মাধ্যমে। এতদসত্ত্বেও প্রথম সেটটি জিততে নিজের প্রায় সবটা দিতে হয় বারবোরাকে। দ্বিতীয় সেটে তবুও আধিপত্য দেখিয়েছেন চেক প্রজাতন্ত্রের টেনিসার। প্রায় দ্বিগুণ ব্যবধানে এটি জেতায় সেমিফাইনালের টিকেট পেয়ে যান তিনি। এবার দুটি ম্যাচের বাধা পেরোতে পারলেও মুকুট উঠবে তার মাথায়।

সেমিফাইনালে জিততে পারলে যারপরনাই খুশি হওয়ার কথা বারবোরা ক্রেসিকোভার। এই ধারণা পাওয়া যায় সেমিফাইনালে উঠার পরের প্রতিক্রিয়া দেখেই। গাফকে হারিয়ে তিনি বলেছেন, ‘আমি আজ এখানে, মানে সেমিফাইনালে। কখনো ভাবিনি আমি এই কোর্টে এভাবে দাঁড়িয়ে থাকব। কিছুই বিশ্বাস হচ্ছে না। বিশেষত একক খেলায় এভাবে আমার উন্নতি হবে এটা ভাবতেই পারছি না এবং আমি ম্যাচও জিতছি। এটাই আমার জন্য বিশেষ কিছু যা কখনো স্বপ্নেও ভাবিনি।’

বারবোরা ২০১৮ সালের রোলান্ড গ্যারোস আসরের দ্বৈত খেলায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। এককের চেয়ে দ্বৈতেই বেশি সফল তিনি। তাই তো এককে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে পেরে নিজেকে বিশ্বাস হচ্ছে না তার। ম্যাচ মধ্যবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে ক্রেসিকোভা বলেন, ‘আমার কাছে এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। গাফের বিপক্ষে ক্রমেই আমার পারফরম্যান্সে অবনতি ঘটছিল।

তবে আমি শুধু চেয়েছি প্রত্যেকটা পয়েন্ট ও প্রত্যেকটা বলের জন্য লড়তে যা আমার কাছে খুব উপভোগ্য ছিল। কোনোভাবে আমি সফলও হয়েছি। দ্বিতীয় সেটে আমার শুরুটা ভালো হয়েছিল। আমি পয়েন্টও পাচ্ছিলাম। তাই আরেকটু কঠোর হওয়ার চেষ্টা করেছি মাত্র।’

আর-এসএস/এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়