ডিপজল ও এখলাস মোল্লাকে মনোনয়ন ফরম দেয়নি আ.লীগ

আগের সংবাদ

নিউজ ফ্ল্যাশ

পরের সংবাদ

দলের কাছে খাবার চাইলেন সূ চি

প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২১ , ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ৯, ২০২১ , ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ

এখন হাতে টাকা নেই। খাদ্য সংকটে ভুগছেন তিনি। ওষুধও যা ছিল শেষ। তবুও সামরিক বাহিনীর কাছ থেকে কোনো সহযোগিতা নিবেন না তিনি। তাই অনন্যোপায় হয়ে জান্তার হাতে বন্দি গণতন্ত্রপন্থি নেতা অং সান সু চি নিজ দলের কাছে খাবার চাইলেন সহবন্দি অন্য আট নেতা ও প্রিয় কুকুর তাইচিদোর জন্য। সোমবার (৭ জুন) আদালত থেকে ফিরে তার আইনজীবীরা এমন তথ্যই জানালেন। খবর ইরাবতীর।

বন্দি হওয়ার পর থেকে নিজের টাকাতেই চলছিল তার খাবার-দাবার, ওষুধসহ অন্যান্য খরচ। এই প্রতিনিধির কাছে তিনি বলেছেন, যারা আমাকে বন্দি করেছেন, তাদের কাছ থেকে কোনো সাহায্য চাই না। সম্ভব হলে আপনারা পাঠান। এ খবর পেয়ে সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) তার জন্য পুলিশের মাধ্যমে চাল, তেলসহ বেশ কিছু খাবারের একটি প্যাকেজ পাঠিয়েছে, যেগুলোর মূল্য স্থানীয় মুদ্রায় ৪ লাখ কিয়েট (২০ হাজার ৬০৮ টাকা)।

দলের প্রতিনিধি ইউ কি উইন জানিয়েছেন, প্যাকেজটির মধ্যে ছিল ২ বস্তা চাল, ৯ কেজি তেল এবং অন্যান্য খাদ্যসামগ্রী। গ্রেপ্তারের পর থেকে একে একে ছয়টি মামলা করা হয়েছে সু চির বিরুদ্ধে। সোমবার আদালত সব মামলার রায় ঘোষণার জন্য গ্রেপ্তারের দিন থেকে হিসাব করে সর্বোচ্চ ছয় মাস (১৮০ দিন) সময় বেঁধে দিয়েছেন। সে হিসাবে মধ্য আগস্টের মধ্যে রায় ঘোষণা হতে পারে বলে সু চির আইনজীবীরা ধারণা করছেন।

মিয়ানমারে ১ ফেব্রুয়ারি রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানের মাধ্যমে সু চির সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। এ অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে দেশটির সর্বময় ক্ষমতা কুক্ষিগত করেন সেনাপ্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাইং। গ্রেপ্তার করা হয় স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি ও প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টসহ অন্য কর্মকর্তাদের। অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে মিয়ানমারবাসী।

ডি-এফবি

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়