ইউরোর মৃত্যুকূপে তিন পরাশক্তি

আগের সংবাদ

সাংবাদিক নান্নু’র মৃত্যু: স্ত্রী ৪ মাস কারাগারে

পরের সংবাদ

তাড়াইলে আধিপত্য বিস্তার: নিহত বেড়ে ২, পুরুষ শূন্য গ্রাম

প্রকাশিত: জুন ৮, ২০২১ , ১১:৪৫ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৮, ২০২১ , ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়ের ডুবাইল জলমহালের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত বেড়ে দুই জনে দাঁড়িয়েছে। সংঘর্ষের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ৭ জনকে আটক করেছে তাড়াইল থানার পুলিশ।

নিহতরা হলেন- মো. শফিকুল ইসলাম (৩৫) ও আ. রাশিদ (৬৫)। এ ঘটনা অন্তত ৩ জন আহত হয়েছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, সোমবার (৭ জুন) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের ডুবাইল জলমহলের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দিগদাইড় পশ্চিমপাড়া গ্রামের সাদেক ভেন্ডারের লোকজনের সঙ্গে প্রবাসী মতি মিয়ার গ্রুপের লোকজনের বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে দুইপক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মুখোমুখি সংঘর্ষে লিপ্ত হয় ডুবাইল বিলের সামনে। এ সময় প্রতিপক্ষের ছোঁড়া বল্লমের আঘাতে দিগদাইড় গ্রামের মো. মতি মিয়ার ছেলে মো.শফিকুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় তাড়াইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শফিকুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

অপরদিকে, রাত সাড়ে ৯টার দিকে সময় ডুবাইল বিলের পাড় থেকে আ. রাশিদ নামে আরও একজনের লাশ উদ্ধার করে তাড়াইল থানার পুলিশ। নিহত আ. রাশিদের শরীরে বল্লমের আঘাতের চিন্হ পাওয়া যায় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সোমবার রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কিশোরগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো.মোস্তাক সরকার। আজ মঙ্গলবার বিকেলে লাশ দাফনের সময় দিগদাইড় গ্রাম পরিদর্শন করেন কিশোরগঞ্জ জেলার সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (করিমগঞ্জ সার্কেল) ইফতেখারুজ্জামান।

নিহত ওই দুইজন দিগদাইড় পশ্চিমপাড়ার গ্রামের সাদেক ভেন্ডারের পক্ষের লোক বলে জানিয়েছে এলাকাবাসী। আহতদের মধ্যে ২ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আজ দুপুরে সরজমিন ঘুরে দেখা গেছে, দিগদাইড় গ্রামে কোনো পুরুষ লোক নেই। নিহতদের বাড়িতে চলছে কান্নার রোল। রাস্তাঘাটে সংঘর্ষে ব্যবহৃত সারি সারি ভাঙা ইট পড়ে আছে। দিগদাইড় বাজারের সব দোকান বন্ধ রয়েছে।

তাড়াইল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মুজিবুর রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ২১ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে। সোমবার রাতেই ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কিশোরগঞ্জ কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া দ্বিতীয়বার যেন কোনো রকম অঘটন না ঘটে সেই জন্য দিগদাইড় গ্রামে টহল দিচ্ছে তাড়াইল থানার পুলিশ। বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়নি।

ডি-এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়