শ্যামগঞ্জে নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন

আগের সংবাদ

আজ ঐতিহাসিক ছয় দফা দিবস

পরের সংবাদ

খাবারে চেতনানাশক মিশিয়ে বাড়ির সর্বস্ব লুট

প্রকাশিত: জুন ৭, ২০২১ , ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জুন ৭, ২০২১ , ১২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

গেল শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে সদরের আরাজি ডুমুরিয়া গ্রামে অচেতন সকলকে ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ডুমুরিয়া সদর ইউনিয়নের আরাজি ডুমুরিয়া গ্রামের মোজাফফর শেখ(৫০) ও তার স্ত্রী নাজমা বেগম(৪৫), ছেলে রাসেল শেখ(২৬), রাহুল শেখ(২৫) ও রাকিব শেখ(১৬)এবং পুত্রবধূ তানজিনা বেগম(১৮) রাতের খাবার খেয়ে সকলেই ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। খাবারের সঙ্গে চেতনা নাশক ওষুধ মেশানো থাকায় বাড়ির সকল সদস্য ঘুমে অচেতন হয়ে পড়লে দুর্বৃত্তরা সেই সুযোগে ঘরে ঢুকে নগদ টাকা, স্বর্ণাংকার, মোবাইল ফোনসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লুট-পাট করে নিয়ে যায়। সকালে নাজমা বেগম বাথরুমে যাওয়ার জন্যে চেষ্টা করলে তিনি মাথা ঘুরে পড়ে যান।

এসময় তার গোঙ্গানী শুনে পার্শ্ববর্তি লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের ডাকাডাকি করতে থাকলে কারও কোন সাড়া না পেয়ে ঘরে ঢুকে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের অচেতন অবস্হায় দেখতে পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের উদ্ধার করে ডুমুরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

প্রতিবেশী গৃহবধূ জামিলা বেগম জানান, শুক্রবার বাড়ির পাশে একটি বিয়ের অনুষ্ঠান থাকায় সেখানে পরিচিত-অপরিচিত অনেক লোকজনের আনাগোনা ছিল। বিকেলের দিকে একজন অপরিচিত বয়স্ক লোক তানজিনার শাশুড়ির খোঁজ করতে ওদের বাড়িতে যায়। শাশুড়ি বাড়িতে নেই শুনে সেই বয়স্ক লোকটা তানজিনার কাছে পান খেতে চায়। তখন সে ঘরের ভিতর পান আনতে গেলে বারান্দায় মিটসেফে রাখা রান্না তরকারিতে হয়তো চেতনা নাশক কিছু মিশিয়ে রেখে যায়। যা রাতে খাওয়ার সময় সকলেই তিতা স্বাদ অনুভব করেছিলো বলেও তিনি জানান।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়