সেই ছাগলের জরিমানা অবশেষে পরিশোধ করলেন ইউএনও

আগের সংবাদ

ভিসার বিষয়ে প্রতারিত না হতে পাকিস্তান হাইকমিশনের সতর্কতা

পরের সংবাদ

সৌদিতে প্রবাসীদের কোয়ারেন্টিনের খরচ দেবে সরকার

প্রকাশিত: মে ২৭, ২০২১ , ৮:২৫ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ২৭, ২০২১ , ৮:৫১ অপরাহ্ণ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সৌদি আরবে গমনেচ্ছু বাংলাদেশিদের কোয়ারেন্টিনে থাকাকালে হোটেল ভাড়া পরিশোধ করবে সরকার। এ বিষয়ে সরকার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে বৃহস্পতিবার (২৭ মে) জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, সৌদি আরবে যারা যাচ্ছে তাদের হোটেলে কোয়ারেন্টিন থাকতে হচ্ছে। কারণ ওই দেশ নিয়ম করেছে, যারা সেখানে যাবে তাদেরকে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

দেশ থেকে যাওয়া প্রবাসীদের কষ্ট দেখে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন তাদের হোটেলের থাকার খরচ যেন সরকার বহন করে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যে সব প্রবাসী সেখানে যাবেন, তাদের একটি তালিকা তৈরি করে সৌদি আরবে আমাদের রাষ্ট্রদূতকে দেয়া হবে। তিনি সেখানে তাদের থাকার ব্যবস্থার সর্বাত্মক সহযোগিতা করবেন।

ড. মোমেন বলেন, সৌদি আরবে গেলে প্রবাসীদের এক সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। তবে তাদের কোয়ারেন্টিনের জন্য যেসব হোটেল নির্ধারণ করেছে সৌদি সরকার, সেগুলো অনকে ব্যয়বহুল। প্রবাসীদের এসব হোটেলে যেতে আগ্রহ কম। তাই আমরা উদ্যোগ নিয়েছি, প্রবাসীরা সৌদিতে গেলে আমরা সাবসিডি দেবো। বিষয়টি নিয়ে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর সঙ্গে আমি আলাপ করেছি।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে দুই ডোজ টিকা নেয়া থাকলে হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকা লাগেনা। সেটা বাসায় করতে হয়। তবে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর প্রবাসীদের বয়স বেশির ভাগ ২০ থেকে ৪০ এর মধ্যে। আর আমরা টিকা দিচ্ছি ৪০ বছরের ঊর্ধ্বে। সে কারণে মধ্যপ্রাচ্যের প্রবাসীদের টিকা দিতে বয়স শিথিলের চিন্তা করছি। আজ শুক্রবার একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক আছে, সেখানে এই প্রস্তাব দেয়া হবে।

ড. মোমেন বলেন, ভারত থেকে যেসব বাংলাদেশি দেশে এসেছেন, তার মধ্যে ১৩ জনের কোভিড আর একজনের ব্ল্যাক ফাঙ্গাস ধরা পড়েছে। আর এটা নিয়ে প্রচারণা বেশি হচ্ছে। এটা নিয়ে সবাই ভয় পাচ্ছে, যেন বাংলাদেশে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট খুব বেশি। ফলে বিভিন্ন দেশ রেড অ্যালার্ট দিয়ে রেখেছে। আমাদের ফ্লাইট দিয়েছে বন্ধ করে।

এসব দেশ ভাবছে ভারতীয় লোক এখান থেকে যাবে ওদের দেশে, আর এই অসুখ ছড়াবে। তবে সৌদি আরব একমাত্র ওপেন। তবে সৌদি আরবেরও এটা নিয়ে ভয়। তাই বাংলাদেশ থেকে কেউ সৌদি গেলে হোটেলে ৭ দিন কোয়ারেন্টিন করতে হবে। এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে ১৭ কোটি লোক। এর মধ্যে একজনের যদি ব্ল্যাক ফাঙ্গাস ধরা পড়ে, এটা নিয়ে আতঙ্ক হওয়ার কিছু নেই।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়