ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে

আগের সংবাদ

সাংবাদিক রোজিনার মুক্তি দাবিতে গৌরনদীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

পরের সংবাদ

রোজিনাকে আটকের প্রতিবাদ: ২ কি. মি. নাট্যযাত্রা প্রাচ্যনাটের

প্রকাশিত: মে ২০, ২০২১ , ৮:৫১ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ২০, ২০২১ , ৯:৪০ অপরাহ্ণ

প্রতীকী কারাগারে নিজেদের বন্দী করে, ঢোলের বাদ্যে, প্রতিবাদী প্লাকার্ড হাতে, কালো টিশার্ট পরে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের ওপর নির্যাতন, মামলা ও কারাগারে প্রেরণের ঘটনায় সচিবালয় থেকে শাহবাগ ২ কিলোমিটারের এমন নাট্যযাত্রার মধ্য দিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ‘রোজিনার সাথে নাট্যযাত্রা’ শীর্ষক ভিন্ন রকমের প্রতিবাদ জানাল নাট্য সংগঠন প্রাচ্যনাট। এ সময় ওই পদযাত্রায় বিভিন্ন নাট্যকর্মীরাও সংহতি জানান।

বৃহস্পতিবার (২০ মে) বিকেলে সচিবালয়ের সামনে থেকে এই পথযাত্রা শুরু হয়ে শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়।

প্রতীকী কারাগার। ছবি: ভোরের কাগজ

প্রাচ্যনাটের মুখ্য সম্পাদক কাজী তৌফিকুল ইসলাম ইমন বলেন, একটা অস্বস্তিকর সময় যাচ্ছে অরাজকতার হাত ধরে। রুচি স্বাস্থ্যহীনতায় ভুগছে মানুষ, প্রদর্শন করছে নিজের পেশীশক্তি। অসামঞ্জস্যতা নিয়ে প্রশ্ন করতে গেলে আপনিও প্রশ্নের মুখোমুখি হন- এসব জানার আপনি কে? চুপ থাকেন, নিজেরটা বুঝে নেন, আর চোখ বুজে থাকেন। আপনি যদি না মানেন অপশক্তি আপনার টুটি চেপে ধরে আপনার কণ্ঠ রোধ করবে। এসব অপশক্তি যতবার টুটি চেপে ধরবে ততবারই কণ্ঠ দ্বিগুণ চিৎকার করে উঠবে। আমারও চিৎকার করতে চাই রোজিনার জন্য, চিৎকার করতে চাই দুর্নীতি বন্ধ করার জন্য।

তিনি বলেন, আমাদের করের টাকায় বেতন নিয়ে আমাদের হেনস্থা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না।

প্রতিবাদী প্লাকার্ডে রোজিনার নাম লেখা হচ্ছে। ছবি: ভোরের কাগজ

গত ১৭ মে পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যান। সেখানে ৫ ঘণ্টার বেশি সময় তাকে আটকে রেখে হেনস্তা করা হয়। একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। রাত ৯টার দিকে তাকে সচিবালয় থেকে শাহবাগ থানায় আনা হয়। এরপর রাতেই রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করা হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব ডা. মো. শিব্বির আহমেদ উসমানী এ মামলা দায়ের করেন।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়