ব্রাজিলে গোলাগুলি, পুলিশসহ নিহত ২৫

আগের সংবাদ

হেফাজত নেতা শাহীনুর পাশা সিলেট থেকে গ্রেপ্তার

পরের সংবাদ

নেইমার এখন কী করবেন?

প্রকাশিত: মে ৭, ২০২১ , ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মে ৭, ২০২১ , ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এ মৌসুমে হট ফেভারিট হয়েও সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছে ফরাসি জায়ান্ট পিএসজি। গত মৌসুমে তারা ফাইনালে খেললেও রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় তাদের। এবার তাদের প্রত্যাশা ছিল শিরোপা। কিন্তু ফাইনালে খেলার আগেই বিদায় নিতে হলো তাদের।

পিএসজি ২০১৭ সালে রেকর্ড ট্রান্সফার ফিতে নেইমারকে বার্সেলোনা থেকে এনেছিল। নেইমারকে আনার ক্ষেত্রে তাদের উদ্দেশ্য ছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা জয় করা। সেই লক্ষ্য বা উদ্দেশ্যের অনেক কাছে গিয়েও যে আশা ছিল, সেটি পূরণ হয়নি তাদের। নেইমার তাদের কাঙ্ক্ষিত সাফল্য এনে দিতে পারেননি। সেমি ফাইনালের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে নেইমার ছিলেন নিষ্প্রাণ। তিনি তার চিরাচরিত খেলাটি খেলতে পারেননি বলে অনেকেই অভিযোগ করেছেন।

আর বার্সা থেকে পিএসজিতে নেইমারের আসার উদ্দেশ্য ছিল খোলস থেকে মুক্ত হওয়া। এটা ওপেন সিক্রেট নেইমার বার্সা থেকে বের হয়ে এসেছিলেন মেসির অধীনস্থ থাকবেন না এ কারণে। তিনি নিজেই একটি দলের প্রধান কাণ্ডারি হবেন আর সেই দলকে সাফল্য এনে দেবেন। কিন্তু তিনি সেটি পারেননি। এমন কি পিএসজিতে মাত্র এক মৌসুম পার করার পরই নিজের ভুল বুঝতে পেরে ফের বার্সায় ফেরার জন্য ব্যাকুল হয়ে ওঠেন নেইমার। এই মৌসুমের আগে তিনি বার্সায় ফেরার জন্য যে কী কী করেছেন, সেটা সবার জানা।

এখন বাস্তবতা হলো নেইমার পিএসজির প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি। আবার নেইমার নিজেও তার ইচ্ছা পূরণ করতে পারেননি। তাই প্রশ্ন ওঠছে নেইমার এখন কী করবেন? তিনি কি পিএসজিতেই থেকে যাবেন নাকি অন্য কোনো নতুন ঠিকানা খুঁজে নিবেন? নেইমারের সঙ্গে পিএসজির বর্তমান চুক্তি আছে ২০২২ সাল পর্যন্ত।

গত মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে খেলার পরও এই মৌসুমে দুর্দান্ত শুরুর পর নেইমার অনেকটাই শান্ত হয়ে গিয়েছিলেন। এমনকি মাত্র ২০ দিন আগে তিনি বলেছেন পিএসজিতেই থাকবেন। আর পিএসজির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল নেইমার রাজি হয়েছেন। তারা নতুন চুক্তির ব্যাপারে দ্রুতই কাজ শুরু করবেন। এটি ছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেয়ার আগের কথা। সেমি থেকে বিদায় নেয়ার পর পুরনো হিসাব নিকাশ আবার বদলে গেছে। এটি মানতেই হবে।

পিএসজিতে নেইমারের সবচেয়ে বড় সঙ্গী ফরাসি বিশ্বকাপ জয়ী কিলিয়ান এমবাপ্পে। তার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সাফল্য পাওয়ার স্বপ্ন দেখছিলেন নেইমার। কিন্তু শোনা যাচ্ছে এই মৌসুম শেষে এমবাপ্পে নতুন কোনো দলে যাওয়ার জোর চেষ্টা চালাবেন। এমবাপ্পেকে পাওয়ার জন্য রিয়াল মাদ্রিদ বসেই আছে। তাদের এ মৌসুমে এখন অন্যতম লক্ষ্য হলেন এমবাপ্পে। বিশ্বকাপ জয়ী এমবাপ্পে চাচ্ছেন পিএসজির চেয়ে ভালো কোনো ক্লাবে যাবেন, শিরোপা জয় করবেন। আর এক্ষেত্রে তার জন্য সবচেয়ে আদর্শ রিয়াল। যদিও শোনা যাচ্ছিল এমবাপ্পেও পিএসজির সঙ্গে তার চুক্তির মেয়াদ বাড়াবেন। এমবাপ্পেও নেইমারের মতো এ কথা বলেছিলেন। কিন্তু এই খবরটিও ছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেয়ার আগে, যখন পিএসজি ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের প্রতিযোগিতায় প্রাধান্য দেখাচ্ছিল। কিন্তু এখন পরিস্থিতি বদলে গেছে। মানে এমবাপ্পেও এখন বেঁকে বসতে পারেন। নেইমার পরিকল্পনা করছিলেন এমবাপ্পেকে সঙ্গে নিয়ে তিনি পিএসজিকে বড় সাফল্য এনে দেবেন। এখন সেই এমবাপ্পেও চলে যাওয়ার চিন্তায় আছেন। তাই এখানেও প্রশ্ন দেখা দিচ্ছে নেইমার কি পিএসজিতে থাকবেন? তিনি গত ২০ দিন আগে যে কথা দিয়েছিলেন, সে কথা রাখবেন?

নেইমার ও কিলিয়ান এমবাপ্পের সঙ্গে পিএসজির চুক্তি ২০২২ সাল পর্যন্ত। এই সময়ের মধ্যে তারা যদি নতুন চুক্তি না করেন, তাহলে চুক্তি শেষে তাদেরকে ফ্রিতে ছেড়ে দিতে হবে পিএসজিকে। এখন প্রশ্ন হলো পিএসজি নেইমার ও এমবাপ্পের পেছনে যে টাকা খরচ করেছে, তাতে করে তারা কি ২০২২ সালে নেইমার ও এমবাপ্পেকে একদম খালি হাতে ছেড়ে দেবে নাকি চুক্তি শেষ হওয়ার আগে তাদের অন্য কোনো ক্লাবে বিক্রি করে দিয়ে অর্থ আদায় করবে। এ প্রশ্নের সহজ উত্তর দিলে নেইমার ও এমবাপ্পে যদি সত্যিই তাদের চুক্তির মেয়াদ না বাড়াতে চান, তাহলে তাদের বিষয়ে এই মৌসুম শেষেই একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে হবে পিএসজির কর্তাদের। আর সেটি হলো তাদের বিক্রি করে দেয়া। কারণ পিএসজি হলো পেশাদার ক্লাব। তারা কখনই আর্থিক ক্ষতি চাইবে না।

এদিকে গত এপ্রিলে শোনা গিয়েছিল নেইমারকে বার্সায় ফেরানোর জন্য ক্লাবটির অন্য খেলোয়াড়রা তাদের বেতনে ছাড় দেয়ার জন্য এক হয়েছিল। কারণ বার্সা এখন আর্থিক সংকটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। ক্লাবের ভবিষ্যতের স্বার্থে তারা এটিতে রাজি হয়েছিলেন। ফলে নেইমার যদি সত্যিই এবার পিএসজি ছাড়তে চান, তাহলে আগামী মৌসুম থেকে তাকে আবার বার্সাতেই দেখা যাবে। আর তিনি যদি মনে করেন যে তিনি পিএসজির কর্তাদের আশ্বস্ত করেছেন যে তিনি থেকে যাবেন, তাহলে ফ্রান্সেই থাকতে দেখা যাবে তাকে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়