পদ্মায় পরিবার হারানো মিমের দায়িত্ব নিলেন চেয়ারম্যান

আগের সংবাদ

টুইটারে নিষিদ্ধ কঙ্গনা, 'গণতন্ত্রের মৃত্যু' দাবি অভিনেত্রীর

পরের সংবাদ

রাবি শিক্ষকদের গুলি করে হত্যার হুমকি

প্রকাশিত: মে ৪, ২০২১ , ২:১৩ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ৪, ২০২১ , ২:১৩ অপরাহ্ণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকদের গুলি করার হুমকি দিয়েছেন উপাচার্য এম আবদুস সোবহানের বাসভবনে পাহারায় থাকা একজন যুবক। এ সময় সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

মঙ্গলবার (৪ মে) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডের পাশে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে গত কয়েক দিন ধরেই থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। গত রবিবার ও সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবন, সিনেট ভবন তালাবদ্ধ করে রাখে ছাত্রীলগের নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের বাসভবনে সিন্ডিকেট সভা হওয়ার কথা ছিল। সেই সভা নিয়ে কথা বলতে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপাচার্য এম আবদুস সোবহানের বাসভবনে যেতে চান বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতিবিরোধী কয়েকজন শিক্ষক। এ সময় উপাচার্য বাসভবনে গেটে তাদের বাধার মুখে পড়তে হয়।

স্থানীয় কয়েকজন চাকরি প্রত্যাশী যুবক ও ক্যাম্পাসের সাবেক কয়েকজন ছাত্র ওই শিক্ষকদের ভেতরে যেতে বাধা দেন। তাদের মধ্যে চাকরি প্রত্যাশী ছাত্রলীগ নেতারাও ছিলেন। শিক্ষকরা তবুও যেতে চাইলে বাধা দেওয়া যুবকদের একজন তাদের গুলি করতে চান। একথা শুনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম টিপু, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদীসহ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ শিক্ষক রেগে সামনে এগিয়ে যান।

শিক্ষকরা বলেন, ‘এই গুলি করার কথা বলল কে?’ এ কথা বলে সামনে এগিয়ে গিয়ে শিক্ষকরা হাত উঁচু করে বাধা দেওয়া যুবকদের উদ্দেশে বলতে থাকেন, ‘এই গুলি চালাও, এই গুলি চালাও’। এ সময় সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমানকে দেখা যায়।

একপর্যায়ে সেখানে পুলিশ ও প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যদের উপস্থিতিতে ‍দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় কয়েকজন শিক্ষককে লাঞ্ছিত করে উপাচার্যের বাসভবন পাহারায় থাকা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী।

জানা গেছে, ওই যুবকের নাম আকাশ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন মেহেরচন্ডী এলাকার বাসিন্দা। আকাশ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নন বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সভাপতি গোলাম কিবরিয়া।

মঙ্গলবার উপাচার্য এম আবদুস সোবহানের মেয়াদের শেষ সিন্ডিকেট সভা তার বাসভবনে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে শিক্ষকদের বাধার মুখে বেলা ১১টার দিকে সেই সভা স্থগিত করা হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আবদুস সালাম জানান, অনিবার্য কারণে আজকের সিন্ডিকেট সভা স্থগিত করা হয়েছে।

দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকদের আহ্বায়ক সুলতান-উল-ইসলাম টিপু বলেন, ‘আমাদের দাবির মুখে সভা স্থগিত হয়। পরে আমরা উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে চাই। ফাইনান্স কমিটির সভার আগেও আমরা দেখা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তিনি আমাদের সঙ্গে দেখা করেননি। আজ যখন আমরা উপাচার্য ভবনে প্রবেশ করার চেষ্টা করি, তখন ছাত্রলীগ আমাদের বাধা দেয়।’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে সে ব্যবস্থা আমরা করেছি।’

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়