সিলেট-৩ আসনে ভোট হচ্ছে না ৯০ দিনের মধ্যে

আগের সংবাদ

রাজধানীতে গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

পরের সংবাদ

মমতাকে জেতাতে পেরে তৃপ্ত দেব, মিমি ও নুসরাত

প্রকাশিত: মে ৩, ২০২১ , ১:১৪ অপরাহ্ণ আপডেট: মে ৩, ২০২১ , ২:৩৫ অপরাহ্ণ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ৩ বিশ্বস্ত সৈনিক মিমি, নুসরাত ও দেব। বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী না হলেও দলকে জেতাতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন তারা। তাই রবিবার তৃণমূল ২০০ আসন পার করা মাত্রই টুইট করলেন যাদবপুরের সাংসদ ও অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। লিখলেন ‘অপরাজিত’।

তৃণমূলের জয়ে একটা তৃপ্তির বোধ কাজ করেছে এই তিন তারকার মধ্যে। মিমি জানিয়েছেন, ‘বাংলা আজ যা করে, ভারত আগামীকাল তা ভাবে’।

বিধানসভা নির্বাচনের প্রচার প্ল্যানিংয়ে প্রথমদিনেই বড় দায়িত্ব দেওয়া হয় দলের ৩ তারকা প্রার্থী দেব, মিমি, নুসরাতকে। তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, ‘দেব, মিমি, নুসরাতকে বেশি করে সময় দিতে হবে’। তিন জনেই তড়িঘড়ি শুটিংয়ের কাজ সেরে মন দেন প্রচারে।

দেব জানান, ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের সময়ে এত জনসমাগম দেখিনি, যা এবারের বিধানসভায় দেখেছি। প্রচার চলাকালীন কোভিডের প্রকোপ বাড়ায় প্রকাশ্য সভায় দাড়িয়ে মানুষকে মাস্ক পড়তে বলেছি। এমনকি এটাও বলেছি যে, বাড়ি থেকে বেরোবেন না। যাকে খুশি ভোট দিন। আমাদের দলের এই অ্যাপ্রোচ মানুষের পছন্দ হয়েছে, তারা বুঝেছেন আমরা তাদের পাশে আছি।

নুসরাত সকালের দিকে ট্রেন্ড আসতে শুরু করা মাত্রই টুইটে লেখেন, খেলা হয়েছে, জেতা হচ্ছে।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের জেতার সম্ভাবনা স্পষ্ট হওয়া মাত্রই হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে লেখেন টিএমসি করবে ২০০ পার। নির্বাচনের প্রচারে অশোকনগরে গিয়ে বিতর্কে জড়ান নুসরাত। ওঠে সমালোচনার ঝড়। ফল প্রকাশের পর সেসব আর মনে রাখতে চান না বসিরহাটের তৃণমূল এই সাংসদ।

টলিউডের অন্দরে কান পাতলে শোনা যায়, তিন তারকার সম্পর্ক নাকি ততটা ভালো নয়। কয়েক বছর আগে, দেবের একটি ছবি থেকে শেষমুহূর্তে বেরিয়ে যান মিমি। মিমির সেই হঠাৎ-সিদ্ধান্তের পেছনে নাকি নুসোতের ভূমিকা ছিল। সেই ঘটনার পর থেকে আর কখনওই তিন তারকাকে একসঙ্গে সুরে বাজতে দেখা যায় নি।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়