ভারতে করোনা যুদ্ধে এবার মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী

আগের সংবাদ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কওমি মাদ্রাসার প্রতিনিধিদের বৈঠক

পরের সংবাদ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব: ২০ মাদ্রাসা ছাত্র বহিষ্কার

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৭, ২০২১ , ১:১৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ২৭, ২০২১ , ১:২৫ পূর্বাহ্ণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের তাণ্ডবে জড়িত থাকার অভিযোগে ২০ মাদরাসাছাত্র বহিষ্কার হয়েছে। জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার শিক্ষাসচিব মুফতি শামছুল হক সরাইলী তাদের বহিষ্কারের আদেশ দেন।

বহিস্কার হওয়া ছাত্ররা হলেন- আশেকে এলাহী, আবু হানিফ, আলাউদ্দিন, মকবুল হোসেন, মিছবাহ উদ্দিন, আশরাফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, মুবারক উল্লাহ, জুবায়ের, হিজবুল্লাহ রহমানী, জুবায়ের, ইফতেখার আদনান, শিব্বির আহমেদ,বুরহানুদ্দীন, আব্দুল্লাহ আফজাল, সাইফুল ইসলাম, রাকিব বিল্লাহ, সোলাইমান, তারিক জামিল ও হাবিবুল্লাহ। তারা সবাই ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র।

মুফতি শামছুল হক সরাইলী সাক্ষরিত বহিষ্কার আদেশে বলা হয়, ‘ভর্তি পালনীয় শর্তাবলীর ২৫ নম্বর ধারায় মাদরাসার সমুদয় রীতিনীতি ও আইন-কানুন অমান্য করে হুজুরদের বাধাকে উপেক্ষা করে গত ২৬ মার্চ সরকারি স্থাপনায় আক্রমণ করার সংবাদ পাওয়ার ভিত্তিতে তাদেরকে বহিষ্কার করা হলো’।

এর আগে গত ৫ এপ্রিল ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তাণ্ডবের ঘটনায় দলীয় কোনো নেতাকর্মী বা মাদরাসাছাত্র জড়িত নয় বলে দাবি করেন হেফাজতে ইসলামের নেতারা। পরে তারা তাণ্ডবের দায়ও অস্বীকার করেন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধীতা করে মাঠে নামে হেফাজত ইসলাম। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ব্যাপক তাণ্ডব চালায় সংগঠনটির নেতাকর্মী ও সমর্থকরা। শতাধিক সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। এ ঘটনায় ১৩ জন মারা যায়। গত এক মাসে ৩৫৯ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
এর মধ্যে গত রবিবার (২৫ এপ্রিল) রাতে গ্রেপ্তার হন জামিয়া ইউনুছিয়ার শিক্ষক ও হেফাজত ইসলামের সহকারি প্রচার সম্পাদক মুফতি জাকারিয়া খান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়