নিয়ামতপুরে ধান কাটা নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ১

আগের সংবাদ

মাস্ক কেনার টাকা নেই, বাবুই পাখির বাসা মুখে দিয়ে অফিসে

পরের সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে সেই আকায়েদের বাকি জীবন কাটবে কারাগারেই

প্রকাশিত: এপ্রিল ২৩, ২০২১ , ১:০৯ পূর্বাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ২৩, ২০২১ , ১:১০ পূর্বাহ্ণ

নিউ ইয়র্কে বাস টার্মিনালে আত্মঘাতী বিস্ফোরণের চেষ্টার সময় আহত অবস্থায় গ্রেপ্তার বাংলাদেশি যুবক আকায়েদ উল্লাহর দণ্ড ঘোষণা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের আদালত। বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) ম্যানহাটনের ফেডারেল জজ ৩১ বছর বয়সী আকায়েদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি আরও ৩০ বছরের সাজা দিয়েছেন।

তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের মেয়াদ ২৫ বছর। আকায়েদকে এর সঙ্গে আরও ৩০ বছর কারাভোগ করতে হবে। ফলে তার বাকি জীবনটা কারাগারেই কাটবে।

আকায়েদ দাবি করেছিলেন, তিনি আত্মহত্যার উদ্দেশে ওই তৎপরতা চালিয়েছিলেন। তার সঙ্গে আইএস কিংবা কোনো জঙ্গি সংগঠনের যোগসূত্র ছিল না। তবে দণ্ড ঘোষণার সময় বিচারক রিচার্ড সুলিভান বলেন, এই হামলা ছিল বর্বরোচিত এবং ভয়ানক অপরাধ।

২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর সকালে নিজের শরীরে বাঁধা ‘পাইপ বোমায়’ বিস্ফোরণ ঘটান আকায়েদ। অফিসগামী যাত্রীদের ব্যস্ততার মধ্যে টাইম স্কয়ার সাবওয়ে স্টেশন থেকে ম্যানহাটনের পোর্ট অথরিটি বাস টার্মিনালে যাওয়ার সংকীর্ণ ভূগর্ভস্থ পথে এ বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এতে আহত হন তিন পুলিশ সদস্য। ঠিকমত বোমাটি বিস্ফোরিত না হওয়ায় প্রাণে বেঁচে গেলেও গুরুতর আহত হন আকায়েদ। তাকে গ্রেপ্তারের পর নিউ ইয়র্ক পুলিশ জানায়, ইসলামিক স্টেটের (আইএস) মাধ্যমে অনুপ্রাণিত হয়ে তিনি হামলা চালানোর চেষ্টা করেন বলে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকলিনে তার মা, বোন ও দুই ভাইর সঙ্গে থাকতেন গ্রিনকার্ডধারী আকায়েদ। তার স্ত্রী ও একমাত্র ছেলে বাংলাদেশে থাকে।

চট্টগ্রামের আকায়েদ বড় হয়েছেন ঢাকার হাজারীবাগে। আট বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে যান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়