ইউরোপীয় ফুটবলে কালো মেঘের ঘনঘটা

আগের সংবাদ

মামুনুল কাণ্ড: সোনারগাঁ থানার সেই ওসি অবসরে

পরের সংবাদ

হেফাজত কাউকে ক্ষমতায় বসাবে না, নামাবেও না: বাবু নগরী

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৯, ২০২১ , ১১:২৬ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ১৯, ২০২১ , ১১:২৬ অপরাহ্ণ

হেফাজত ইসলামের যুগ্মমহাসচিব মামুনুল হকসহ বেশ কয়েকজন নেতাকে গ্রেপ্তারের পর এখন বেশ চাপের মুখে পড়েছে সংগঠনটি। এ পরিস্থিতিতে অবশেষে মুখ খুলতে বাধ্য হলেন এর আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। বাধ্য হলেন নরম সুরে কথা বলতে। জুনায়েদ বাবুনগরী বললেন, কাউকে ক্ষমতায় বসানো, কাউকে ক্ষমতা থেকে নামানো হেফাজতে ইসলামের উদ্দেশ্য নয় পরিষ্কার ভাষায় বলে আসতেছি। কোনও পার্টি বা দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করা হেফাজতে ইসলামের উদ্দেশ্য নয়। কিন্তু কিছু কুচক্রীমহল নানাভাবে এসব গুজব ছড়াচ্ছে। সরকারের প্রতি আমার অনুরোধ, আপনারা এ গুজবে কান দেবেন না। তিনি আরও বলেন, অনেকের সন্দেহ ‘হেফাজতে ইসলামের উদ্দেশ্য হলো অমুক অমুক দলকে ক্ষমতায় বসানো। এটি ডাহা মিথ্যা কথা। নির্জলা মিথ্যাচার।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজ নামে খোলা (আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী) পেজে এক ভিডিও বার্তায় তিনি এসব কথা বলেন। এ ভিডিও বার্তায় বর্তমান পরিস্থিতিতে সংগঠনের নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধারণের নির্দেশনাও দেন বাবুনগরী।

বাবুনগরী আরও বলেন, হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে ২০১০ সালে। এখন ২০২১ সাল, এই ১১ বছরে কেউ প্রমাণ দিতে পারবে না, অমুক পার্টির সাথে হেফাজতে ইসলামের সম্পর্ক ছিল। কেউ প্রমাণ দিতে পারবে না।

বর্তমান পরিস্থিতিতে সংগঠনের নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধারণের নির্দেশনা দিয়ে ভিডিওতে বাবুনগরী আরও বলেন, ‘আপনারা ধৈর্য ধারণ করুন, কোনও সংঘাতে যাবেন না। কোনও জ্বালাও পোড়াও করবেন না। হেফাজতে ইসলাম ভাঙচুর আর জ্বালাও পোড়াওতে বিশ্বাস করে না। বরং হারাম মনে করে। আপনারাও ধৈর্য ধারণ করুন। নিরাশ হবেন না। হতাশ হবেন না। হিম্মত, সাহস রাখুন, বালা মুসিবত বিপদের ওপর ধৈর্য ধারণ করুন। খবরদার কোনও ভাঙচুর করবেন না। জ্বালাও পোড়াও করবেন না। সংঘাতে যাবেন না।’

ভিডিওবার্তায় বাবুনগরী সংগঠনের আটক নেতাকর্মীদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন। প্রশাসন মাহে রমজানে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের, ওলামা কেরাম, দেশের জনগণ, তৌহিদী ছাত্র জনতাকে হয়রানি করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের যেসব নেতাকর্মী, হক্কানি আলেম, নির্দোষ মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদেরকে অবিলম্বে নিঃশর্তে মুক্তি দান করুন। বড় বড় আলেম, আজিজুল হক ইসলামাবাদি, জুনায়েদ আল হাবিব, মুফতি সাখাওয়াত, মাওলানা মামুন, মামুনুল হক, মুফতি ইলিয়াস হামিদীসহ আরও অনেক বড় বড় আলেম, তৌহিদী জনতা, ছাত্র জনতা যাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মুক্তি দিন।

তিনি প্রশ্ন ছুড়ে বলেন, ২০১৩ সালের মামলায় ৮/৯ বছর পর এখন গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। এতদিন কোথায় ছিলেন আপনারা? আর এই ২০১৩ সালের মামলা হিসেবে যেগুলো সাজানো হয়েছে এগুলো ডাহা মিথ্যা। ২০১৩ সালের ডাহা মিথ্যা মামলায় যাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদেরকেও মুক্তি দিন। এটাও আমাদের দাবি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়