লকডাউনে খুলনায় নানা অজুহাতে বাইরে বের হচ্ছেন সাধারণ মানুষ

আগের সংবাদ

বাঁশখালী নিহতদের ক্ষতিপূরণ চেয়ে লিগ্যাল নোটিশ

পরের সংবাদ

লামায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৮, ২০২১ , ৯:০৪ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ১৮, ২০২১ , ৯:০৪ অপরাহ্ণ

পার্বত্য বান্দরবানের লামায় দুই সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে রবিবার (১৮ এপ্রিল) সকাল সাড়ে দশটার দিকে উপজেলার শিলেরতুয়া এলাকায় ট্রাক্টর দুর্ঘটনায় এক কিশোর এবং আগেরদিন শনিবার (১৭ এপ্রিল) বিকাল সাড়ে চারটার দিকে লামা-গজালিয়া সড়কের নাপিতঝিরি এলাকায় পিকআপ দুর্ঘটনায় দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়। লামার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান এই খবর নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, সকাল সাড়ে দশটার দিকে লামার রপসী পাড়া সড়কের ছামাইছড়িতে পাথর পরিবহন কাজে নিয়োজিত একটি ট্রাক্টর উল্টে গিয়ে মো. শাহজাহান (১৪) নামে এক কিশোর গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর নিয়ে জানাগেছে, ওই কিশোর গত দুইদিন আগে পাশ্ববর্তি উপজেলা চকরিয়ার কাকারা ইউনিয়ন থেকে লামায় ড্রাইভিং শিখার জন্য লামায় আসে। সেই ওই উপজেলার শাহমুরাবাদ এলাকার মো. মনছুর আহমেদর ছেলে।

এদিকে শনিবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে লামা-গজালিয়া সড়কের নাপিত ঝিরি নামক স্থানে পিকআপ গাড়ি (ছোট ট্রাক) দুর্ঘটনায় দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ওই পিকআপের চালকসহ অন্তত আরও তিনজন।

নিহতরা হলেন লামার গজালিয়া ইউনিয়নের সাপমারাঝিরি এলাকার মো. শাহ আলমের ছেলে মো. মানিক মিয়া (৩৫) ও গাইন্দাপাড়া এলাকার চিনাপ্রু মার্মার ছেলে সুইহ্লাছিং মার্মা (৪০)। তারা বালু পরিবহনকৃত ওই পিকআপ গাড়িতে শ্রমিকের কাজ করছিলেন।

একই ঘটনায় আহত হন, অংচিশে মার্মা (৩০), সুছাংপ্রু মার্মা (৩৫) ও গাড়ি চালক মো. এনাম (৪০)।

লামা থানার ওসি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, পিকআপটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের বাহিরে ছিটকে পড়ে। এতে অন্তত ৫ জন গুরুতর আহত হন। তাদের উদ্ধার করে লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. মানিক মিয়া নামক এজনকে মৃত ঘোষণা করেন। এবং আশঙ্কজনক অবস্থায় দুইজনকে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ওই দুইজনকে কক্সবাজার নেওয়ার পথেই চকরিয়া খ্রিস্টান মেমোরিয়াল হাসপাতালে সুইহ্লাচিং মার্মাকে সেখানকার কতর্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আহতরা লামাও কক্সবাজার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এমআই

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়