প্রথম দিনের প্রস্তুতিতে উজ্জ্বল মুশফিক-তামিম

আগের সংবাদ

৯ ভেন্যুতে বিশ্বকাপ

পরের সংবাদ

পাওনা টাকা চাওয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৭, ২০২১ , ৯:৩৫ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০২১ , ৯:৩৫ অপরাহ্ণ

পটুয়াখালীর বাউফলের ধুলিয়া ইউনিয়নে পাওনা টাকা চাওয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। শনিবার (১৭ এপ্রিল) বেলা ১০টার দিকে ধুলিয়া ইউনিয়নের ভ্যারনতলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ধুলিয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হারুন অর রশিদ নামের এক ব্যক্তি স্থানীয় আল আমিন নামের এক ব্যক্তির কাছে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা পায়। ঘটনার দিন আল আমিনের ভাই কাদের মিয়ার কাছে হারুন অর রশিদ টাকা চাইতে গেলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এক পর্যায়ে ঘটনাটি ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আনিচুর রহমান রব এবং মূ. হুমায়ুন কবীরের (আসন্ন ইউপি নির্বাচনে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী) কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়ায়।

খবর পেয়ে নিয়ন্ত্রণের জন্য চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে দেশি অস্ত্রসহ সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়। গুরুতর আহত মো.শহিদুল ইসলাম (৫০), হারুন অর রশিদ (৪৫), সোয়াইব হান্নান (৩৫) এবং মো.সাইমুনকে (৩৩) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহত সবাই নৌকার সমর্থক বলে জানা গেছে।

নৌকার প্রার্থী মূ.হুমায়ুন কবীর অভিযোগ করেন, করোনার কারণে নির্বাচন স্থগিত থাকলেও বর্তমান চেয়ারম্যানের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড থেমে নেই। ঘটনাস্থলে চেয়ারম্যানের নির্দেশেই হামলা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বাউফল থানায় একাধিক অভিযোগ দিলেও পুলিশ কোন ভূমিকাই নিচ্ছেন না।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনিচুর রহমান রব বলেন, ঘটনা শুনে আমি উভয় পক্ষকে মিলিয়ে দিতে গিয়েছি। আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা এবং বানোয়াট।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়