বাসায় রেখেই খালেদা জিয়ার চিকিৎসা সম্ভব: চিকিৎসক

আগের সংবাদ

করোনা নিয়েই বিজ্ঞাপনে ক্যাট

পরের সংবাদ

‘ভুয়া’ ডিগ্রির অভিযোগে যা বললেন মমতাজ

প্রকাশিত: এপ্রিল ১৩, ২০২১ , ৬:৪৮ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ১৩, ২০২১ , ৬:৪৮ অপরাহ্ণ

শনিবার ভারতের তামিলনাড়ুর গ্লোবাল হিউম্যান পিস ইউনিভার্সিটি থেকে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি লাভের খবর জানান কণ্ঠশিল্পী ও সাংসদ মমতাজ। সম্মাননাটি আনতে যাওয়ার আগে বিমানবন্দর থেকে বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন তিনি। জানা যায়, শিল্পী হিসেবে সাতশ’র বেশি একক অ্যালবামের রেকর্ড, সুদীর্ঘ ৩০ বছর বাংলা গানকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরা ও সমাজসেবা ছাড়াও নানামুখী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত রেখে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন মমতাজ। যে কারণে গ্লোবাল হিউম্যান পিস ইউনিভার্সিটি বিশেষ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাকে ‘ডক্টর অব মিউজিক’ডিগ্রি প্রদান করে।

অন্যদিকে মমতাজকে ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে, গ্লোবাল হিউম্যান পিস ইউনিভার্সিটি অবৈধ এবং ভুয়া। এ বিষয়ে ফ্যাক্টচেক জানায়, ভারতে গ্লোবাল হিউম্যান পিস ইউনিভার্সিটি নামে বৈধ কোনো বিশ্ববিদ্যালয় নেই। তবে এ নামে একটি ওয়েবসাইট রয়েছে যারা টাকার বিনিময়ে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি দিয়ে থাকে যা ভারতের দ্য ইউনিভার্সিটি গ্রান্টস কমিশন (ইউজিসি) অ্যাক্ট-১৯৫৬ অনুযায়ী অবৈধ।

এছাড়াও দেখা যায়, ভারতে মোট ৯৭৯টি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে কেন্দ্র পরিচালিত বিশ্ববিদ্যালয় ৫৪টি, ভারতের বিভিন্ন রাজ্য পরিচালিত বিশ্ববিদ্যালয় ৪২৫টি, প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় ৪২৫টি, এবং ইউজিসি অ্যাক্ট-১৯৫৬ এর তৃতীয় সেকশন অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে গণ্য করা হয় আরো ১২৫টি প্রতিষ্ঠানকে। এর মধ্যে গ্লোবাল হিউম্যান পিস ইউনিভার্সিটির কোনো নাম নেই। এছাড়া এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে এর স্থায়ী ক্যাম্পাসের কোনো ঠিকানা পাওয়া যায়নি। তবে তাদের কিছু আঞ্চলিক কেন্দ্রের ঠিকানা দেওয়া রয়েছে। গুগল ম্যাপে সার্চ করে যেগুলোর কোনো কিছু পাওয়া যায়নি। এছাড়া ইতালি, সৌদিআরব ও জার্মানিতে বিশ্ববিদ্যালয়টির আঞ্চলিক অফিস থাকার কথা উল্লেখ করলেও ওয়েবসাইটে কোনো লিংক কিংবা ঠিকানা দেওয়া হয়নি।

তবে বিশ্ববিদ্যালয়টির বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নিয়ে গণমাধ্যমে মমতাজ বলেন, ‘আমার কাছে বিশ্ববিদ্যালয়টি ভুয়া মনে হয়নি। আর ভুয়া বলে যে বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম আসছে সেটা এ বিশ্ববিদ্যালয় নয়। আমাকে প্রতিষ্ঠানটি প্রপার ওয়েতে সম্মানসূচক ডিগ্রি প্রদান করেছে। আমি সরাসরি উপস্থিত ছিলাম। এছাড়াও অনুষ্ঠানে শত শত মানুষ ছিলেন। সেখানে হাজির হয়ে বিষয়টি কোনোভাবেই ভুয়া মনে হয়নি আমার কাছে।’

মমতাজের হাতে সম্মাননা তুলে দেন বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান পি ম্যানুয়েল। একই সময়ে সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেছেন চেন্নাইয়ের সাবেক জেলা জজ থিরু এজে মুরুগানানথাম ও তামিলনাড়ুর আধ্যাত্মিক ধর্মগুরু খলিফা মাস্তান সাহেব।

ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়