নিউজ ফ্ল্যাশ

আগের সংবাদ

সরিষার ট্রাকে মিললো ৩৮ কেজি গাঁজা

পরের সংবাদ

খালেদা জিয়া করোনায় আক্রান্ত

প্রকাশিত: এপ্রিল ১১, ২০২১ , ১২:২২ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ১১, ২০২১ , ১২:৫১ অপরাহ্ণ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বাসায় দেওয়ার পরও করোনায় ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। তার নিরাপত্তার কথা ভেবে গত বছরের ২৫ মার্চ এক নির্বাহী আদেশে তাকে ছয় মাসের জামিনে মুক্তি দেয় সরকার।

আজ রবিবার (১১ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। শনিবার বিকেলে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। আইসিডিডিআর,বি’র ল্যাবলেটরিতে তার করোনা পরীক্ষা করানো হয়। তবে এখনো এ বিষয়ে জানে না তার পরিবার ও দল বিএনপি।

এদিকে, করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করায় বাড়তি সতর্কতা হিসেবে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষার নমুনা নেওয়া হয়েছে এমন খবরে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়।

গত শনিবার বিকেল ৩টার দিকে রাজধানীর গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় তিনি এ নমুনা দেন একটি গণমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশিত হলেও খালেদা জিয়ার ব্যাক্তিগত চিকিৎসক ও তার ভাগ্নে ডা. মামুন জানান, এমন ঘটনার কোনো সত্যতা নেই।

খালেদা জিয়ার করোনা পজিটিভের রিপোর্ট।

তিনি বলেন, ‘তার রেগুলার চেকআপ আমিই করি। রেগুলার চেকাপের অংশ হিসেবে ব্লাডটেস্ট করতে হয়। এটার জন্য তার ব্লাড নিতেই টেকনেশিয়ান নিয়ে ফোরোজায় গিয়েছিলাম। এটা কোন করোনা পরীক্ষার অংশ নয়। খালেদা জিয়ার করোনা পরীক্ষার খবর নিতান্তই বিভ্রান্তিমূলক’।

সরকারের নির্বাহী আদেশে জামিনে রয়েছেন খালেদা জিয়া। যদিও তাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করে আসছেন বিএনপি নেতারা।

২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতির মামলায় তাকে কারাগারে যেতে হয়েছিল। দুই বছরের বেশি সময় কারাগারে থাকার পর গত বছর করোনা মহামারি বৃদ্ধি পাওয়ার পর পরিবারের আবেদনে তাকে ৬ মাসের জামিনে মুক্তি দেয় সরকার, যা তিন দফায় বৃদ্ধি করা হয়েছে।

বর্তমানে তিনি গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। খালেদা জিয়ার সঙ্গে শুধুমাত্র তার পরিবারের সদস্য ও ব্যক্তিগত চিকিৎসক ছাড়া অন্য কেউ দেখা করতে পারেন না।

এমএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়