দায়ীদের কোনোভাবেই ছাড় নয়

আগের সংবাদ

অসাধু ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য থামবে কবে?

পরের সংবাদ

ফুটওভার ব্রিজ আশু জরুরি

প্রকাশিত: এপ্রিল ৮, ২০২১ , ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ৮, ২০২১ , ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ

সূর্যের উদয়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নরসিংদীর বুকে বয়ে চলা মহাসড়কগুলোও মানুষের প্রাণচাঞ্চল্যে জেগে ওঠে। নানা শ্রেণি-পেশার মানুষের পদভারে ভোরেই জনাকীর্ণ হয়ে উঠে এই অঞ্চল। ঠিক সময়ে অফিসে পৌঁছতে ঊর্ধ্বশ্বাসে দৌড়ায় চাকরিজীবীরা। শিল্প-কারখানার শ্রমিকদের আনাগোনা যেন পরিণত হয় একেকটা মিছিলে! সেই সঙ্গে এই অঞ্চলে দেশের সবচেয়ে বড় পাইকারি কাপড়ের আড়ত হওয়ায় কাপড়বোঝাই ট্রাকের আনাগোনাও চোখে পড়ার মতো। শিল্পাঞ্চল হওয়ার সুবাদে অন্য যে কোনো শহরের তুলনায় কোলাহল এখানে একটু বেশি। কিন্তু মহাসড়কের দানবাকৃতির বেপরোয়া যানবাহন পথচারীদের সবচেয়ে ভয়ের কারণ। একটি ওভারব্রিজের অভাবে প্রায়ই সৃষ্টি হয় অনাকাক্সিক্ষত যান ও মানব জটলা।

দক্ষিণ দিকে রাজধানী ঢাকা থেকে বয়ে চলা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক, যা গাউছিয়া-শেখেরচর হয়ে নরসিংদীর পাঁচদোনা মোড়ে এসে মিলিত হয়েছে। অন্যদিকে উত্তরদিকে ঢাকা থেকে আসা বিকল্প মহাসড়ক যা গাজীপুরের টঙ্গী ও ঘোড়াশাল হয়ে পাঁচদোনা মোড়ে এসে মিলিত হয়েছে। আর পূর্বদিক থেকে ভৈরব ও ভেলানগর হয়ে প্রবেশ করেছে এই পাঁচদোনা মোড়েই। তিন দিক থেকে আসা মহাসড়ক ও একটি আঞ্চলিক সড়কের একই স্থানে মিলিত হওয়ায় স্থানটিতে বিশালাকৃর ‘সড়ক মোহনায়’ পরিণত হয়েছে এই পাঁচদোনার মোড়। এছাড়াও একই মোড় থেকে পশ্চিম দিকে আঞ্চলিক সড়ক পলাশের ডাংগাতেও প্রবেশ করেছে। দেশে মহাসড়কের এত বড় মোহনা খুব অল্প জায়গাতেই দেখা যায়। সবমিলিয়ে একটি ওভারব্রিজের অভাবে এই পাঁচদোনা মোড় সাধারণ পথচারীদের কাছে এক গোলক ধাঁধায় পরিণত হয়েছে। সৃষ্টি হয়েছে এক মৃত্যুফাঁদের! দৈনন্দিন লাখো মানুষের পায়ে হাঁটার জন্য যেমন পর্যপ্ত ফুটপাত নেই, তেমনি নেই কোনো ওভারব্রিজও! অথচ এই সড়ক মোহনার পূর্ব থেকে পশ্চিম কিংবা উত্তর থেকে দক্ষিণের পথে যেতে জীবনকে বিপদাপন্ন করে মহাসড়ককে আড়াআড়িভাবে পাড়ি দিতে হয়। কোনো ধরনের জেব্রাক্রসিং, সিগন্যাল কিংবা যানবাহনের গতিরোধের ন্যূনতম ব্যবস্থারও দেখা মেলা না এখানে। শিশু ও বৃদ্ধ বয়সিদের জন্য এই সড়ক মোহনা যেন সাক্ষাৎ মৃত্যুপুরী! এত কোলাহলপূর্ণ স্থানটিতে নিয়ন্ত্রণহীন যানচলাচল নানা দুর্ঘটনার মাত্রা জোগায়। এই ত্রিমুখী মহাসড়কে অন্তত একটি ওভারব্রিজ এখন আশু জরুরি হয়ে পড়ছে। তাই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি আশু আমলে নিয়ে এখনই এই স্থানটিতে একটি ওভারব্রিজ নির্মাণের অনুরোধ করছি।

মাসুম বিল্লাহ

পলাশ, নরসিংদী।

[email protected]

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়