স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে: শ ম রেজাউল করিম

আগের সংবাদ

সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে: আজিজ

পরের সংবাদ

অবশেষে জর্ডানের বাদশার আনুগত্য স্বীকার রাজপুত্র হামজার

প্রকাশিত: এপ্রিল ৬, ২০২১ , ৪:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ৬, ২০২১ , ৪:৩২ অপরাহ্ণ

জর্ডানের বাদশা আব্দুল্লাহ ও সংবিধানের প্রতি অনুগত থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সাবেক যুবরাজ হামজা বিন হুসেইন। সোমবার (৬ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা জানান। খবর বিবিসির।

জর্ডানের রাজপ্রাসাদ থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে ৪১ বছর বয়সী হামজা বিন হুসেইন বলেন, ‘আমি নিজেকে বাদশার হাতে সমর্পণ করছি। জর্ডানের প্রিয় হাশেমি রাজত্বের সংবিধানের প্রতি আমি অনুগত থাকবো।’ রাজপুত্র হামজা তার বিরুদ্ধে ওঠা দেশবিরোধী চক্রান্তের অভিযোগও অস্বীকার করেছেন।

এর আগে গত শনিবার হামজা দাবি করেছিলেন, তাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। এ দিন গণমাধ্যমে পাঠানো দুটি ভিডিওতে হামজা জর্ডানের নেতাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অযোগ্যতা ও হয়রানির অভিযোগও আনেন। কথিত একটি অভ্যুত্থান ষড়যন্ত্রের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দেশটির বেশ কয়েকজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তারের পর তিনি ওই ভিডিওদুটি পাঠান। এ ঘটনার পর জর্ডানের সামরিক বাহিনী জানায়, দেশের ‘নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা’ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে এমন পদক্ষেপ থেকে বিরত থাকতে হামজাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রাজপুত্র হামজা স্থানীয় বিভিন্ন গোষ্ঠী নেতাদের সঙ্গে দেখা করার পর তাকে ‘গৃহবন্দি’ করা হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, এই নেতাদের মধ্যে হামজা কিছুটা সমর্থন আদায় করতে সক্ষম হয়েছিলেন। রাজপুত্র হামজা বিদেশি বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে যোগসাজশে দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত করেছিলেন বলে পরদিন জর্ডানের উপপ্রধানমন্ত্রী আয়মান সাফাদি পাল্টা অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, সাবেক যুবরাজ দেশকে অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা করছেন। চক্রান্তে জড়িত থাকার অভিযোগে বাদশা আব্দুল্লাহর সাবেক এক উপদেষ্টা ও রাজপরিবারের এক সদস্যসহ অন্তত ১৬ জনকে আটক করার কথাও জানান সাফাদি। আটককৃতদের মধ্যে সামরিক বাহিনীর কেউ নেই বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

রাজপুত্র হামজা ও বাদশা আব্দুল্লাহর মধ্যে দ্বৈরথের বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার ঘটনা নজিরবিহীন। সৎ ভাই হামজাই এক সময় বাদশা আব্দুল্লাহর পর সিংহাসনের উত্তরাধিকারী ছিলেন; ২০০৪ সালে তাকে যুবরাজের পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে আব্দুল্লাহ তার ছেলেকে ওই পদে বসান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়