পুকুর খননে মিলল ১৫ কোটি টাকা মূল্যের শিবলিঙ্গ মূর্তি

আগের সংবাদ

জবিতে উপবৃত্তি পাবে সংখ্যালঘু ও প্রতিবন্ধীরা

পরের সংবাদ

বসুরহাটে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ৬

প্রকাশিত: এপ্রিল ৫, ২০২১ , ১০:৪২ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ৫, ২০২১ , ১০:৪২ অপরাহ্ণ

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পৌরসভা এলাকায় মির্জা কাদের অনুসারী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খিজির হায়াত খানের অনুসারীদের মধ্যে দু’দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছে। সোমবার (৫ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার করালিয়া এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

কাদের মির্জার অনুসারীদের মধ্যে আহত হয়েছে, সহিদুল্লাহ রাসেল (৩২), মো.ইউসূফ (২৩), সুজন (২৬) এবং খিজির হায়াত খানের আহত অনুসারীরা হলেন, নূর রহমান রাহিম (২৭), করিম উদ্দিন শাকিল (২৩) ও রাকিব (২৭)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বসুরহাট পৌরসভার নির্বাচনের পর থেকে কোম্পানীগঞ্জে কাদের মির্জা এবং উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি খিজির হায়াত খান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশের নেতাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিলো । ওই দ্বন্দ্বের জের ধরে সোমবার সন্ধ্যায় পৌরসভার করালিয়া এলাকার চক্ষু হাসপাতালের সামনে মির্জা কাদেরের অনুসারী সহিদুল্লাহ রাসেল এবং খিজির হায়াত খানের অনুসারী শাকিল ও রাহিমের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। এসময় উভয়ের সঙ্গে যুক্ত হয় তাদের সমর্থকরা। এক পর্যায়ে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৬জন আহত হয়।

আহতদের উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে সহিদুল্লাহ রাসেলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। এদিকে খিজির হায়াত খানের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, সংঘর্ষ শেষে মির্জা কাদেরের অনুসারীরা হামলার শিকার ছাত্রলীগ কর্মী শাকিলের বাড়িতে ফের হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

কাদের মির্জার অভিযোগ, খিজির হায়াত খান ও রাহাতের লোকজন তার কর্মীদের উপর অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়েছে। হামলায় তার ৩জন কর্মী আহত হয়েছে। করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবে মঙ্গলবার গরিব মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবেন তিনি। ওই ত্রাণ বিতরণকে ব্যহত করতে বিভিন্ন স্থানে পরিকল্পপিতভাবে তার কর্মীদের ওপর হামলা চালানো হচ্ছে। তার এক কর্মী মুমূর্ষ অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে রয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি।

কোম্পানীগঞ্জ থানা ওসি মীর জাহেদুল হক রনি জানান, দলীয় কোন্দলের জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে ওই এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়