বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

আগের সংবাদ

কমলাপুরে ট্রেনের টিকেটের জন্য হাহাকার

পরের সংবাদ

ভারতে মাওবাদী বিরোধী অভিযানে নিহত ২২ নিরাপত্তাকর্মী, নিখোঁজ ১

প্রকাশিত: এপ্রিল ৪, ২০২১ , ৩:৩৩ অপরাহ্ণ আপডেট: এপ্রিল ৪, ২০২১ , ৩:৩৬ অপরাহ্ণ

ভারতের ছত্তিশগড়ের বিজাপুরে মাওবাদীদের সঙ্গে এনকাউন্টারে অন্তত ২২ জন নিরাপত্তাকর্মী নিহত হয়েছেন। এছাড়া ১ জন সদস্য এখনো নিখোঁজ।

এর আগে ছত্তিশগড় পুলিশের মহাপরিচালক (নকশাল অপারেশন) অশোক জুনেজা বলেছেন, মৃতের সংখ্যা বেড়ে আট হয়েছে। গতকাল পাঁচজন নিরাপত্তাকর্মীর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার ৩ এপ্রিল নিরাপত্তা বাহিনী ২০০০ সৈন্য নিয়ে দক্ষিণ বস্তার জঙ্গলের বিজাপুর এবং সুকমা জেলা থেকে অভিযান শুরু করে। দুপুর ১২টার দিকে মাওবাদীরা একটি হামলা চালায়, যার ফলে তিন ঘণ্টা ধরে চলা একটি এনকাউন্টার হয়।

আজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেলের সঙ্গে কথা বলেন এবং পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) ডিরেক্টর জেনারেল কুলদীপ সিংকে ছত্তিশগড় ভ্রমণের নির্দেশ ও নির্দেশ দেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ মুখ্যমন্ত্রীকে এক সরকারি বিবৃতি দিয়ে বলেন, কেন্দ্র ও রাজ্য একসঙ্গে লড়াই করবে এবং জিতবে। তিনি কেন্দ্র থেকে প্রয়োজনীয় সব ধরনের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ ছত্তিশগড়ের বিজাপুর নকশাল হামলায় সৈন্য হত্যার ঘটনায় শোক প্রকাশ করে বলেছেন, জাতি তাদের আত্মত্যাগ কখনও ভুলবে না।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গতকাল সন্ধ্যায় টুইট করেছেন, ছত্তিশগড়ে মাওবাদীদের সঙ্গে লড়াই করার সময় শহীদদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। সাহসী শহীদদের বলিদান কখনো ভুলা যাবে না। আহতরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সুস্থ হয়ে উঠবেন।

গত ১০ দিন ধরে রাজ্যের নিরাপত্তা বাহিনী নিষিদ্ধ সিপিআই (মাওবাদী) শীর্ষ সদস্য মাদভি হিদমার অবস্থান জানা যাচ্ছে। যারা ২০১৩ সালের ঝিরাম ঘাটি হত্যাকাণ্ডসহ বড় ধরনের হামলার সঙ্গে যুক্ত। ২০১৩ সালে ঝিরাম ঘাটি নকশাল হামলায় ছত্তিশগড় কংগ্রেসের প্রবীণ নেতাসহ ৩০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়।

ছত্তিশগড়ের নারিয়ানপুর জেলায় ২৭ জন ডিআরজি সৈন্য বহনকারী একটি বাসকে লক্ষ্য করে মাওবাদীরা পাঁচজন পুলিশকে নিহত এবং ১৪ জন আহত হওয়ার কয়েকদিন পর শনিবারের এনকাউন্টার ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার ছত্তিশগড়ের সুকমা জেলা থেকে নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে বিস্ফোরক লাগানোর ঘটনায় জড়িত তিনজন মাওবাদীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়