মানবকণ্ঠের প্রকাশক ও ভাষা সৈনিক জাকারিয়া খান চৌধুরী আর নেই

আগের সংবাদ

বন্ধুত্বের বার্তা নিয়ে শুক্রবার ঢাকা আসছেন মোদী

পরের সংবাদ

ব্যালেস্টিক মিসাইল পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া: জাপান

প্রকাশিত: মার্চ ২৫, ২০২১ , ১২:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: মার্চ ২৫, ২০২১ , ১২:৫১ অপরাহ্ণ

উত্তর কোরিয়া সম্প্রতি দুইটি ব্যালেস্টিক মিসাইল পরীক্ষা করেছে বলে সন্দেহ করছে জাপান। যুক্তরাষ্ট্রের নব্য প্রেসিডেন্ট বাইডেনের আমলে প্রথম এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করল উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাবাহিনী বলছে, সম্প্রতি সমুদ্রে দুইটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া। তবে এর বিস্তারিত কিছু জানায়নি। অন্যদিকে জাপানের প্রধানমন্ত্রী সুগা বলেছেন, সি অফ জাপান যা ইস্ট কোরিয়া সি বলেও পরিচিত, সেখানে দুইটি ব্যালেস্টিক মিসাইল পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া, যা জাতিসংঘের প্রস্তাব অনুসারে তারা করতে পারে না। খবর ডুয়েচে ভেলের।

সুগা বলেছেন, প্রায় এক বছর পর এই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করল উত্তর কোরিয়া। এর ফলে জাপান এবং ওই অঞ্চলের শান্তি ও নিরাপত্তার বিষয়টি উদ্বেগজনক হয়ে পড়েছে। জাপানের প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী মাসে তার সফরের সময় তিনি বাইডেনের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করবেন। অন্যদিকে উত্তর কোরিয়া এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করার পরই দক্ষিণ কোরিয়া ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের বৈঠক ডেকেছে। সেখানে বিষয়টি নিয়ে বিস্তারে আলোচনা হবে।

সপ্তাহখানেক আগেই উত্তর কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করেছিল। তবে তা ব্যালেস্টিক মিসাইল নয়, ছোট পাল্লার নন-ব্যালেস্টিক মিসাইল। তখন অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি। কারণ, নন-ব্যালেস্টিক মিসাইল পরীক্ষার উপর জাতিসংঘের কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। বাইডেনও তখন বলেছিলেন, এটা স্বাভাবিক ঘটনা। কিন্তু এবারের পরীক্ষা নিয়ে এই কথা বলা যাচ্ছে না।

নন-ব্যালেস্টিক মিসাইলের পরীক্ষার সময়টা ছিল উল্লেখযোগ্য। তখন যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়ার যৌথ নৌ-মহড়া চলছিল। মার্কিন সেক্রেটারি অফ স্টেট অ্যান্টনি ব্লিংকেন এবং ডিফেন্স সেক্রেটারি লয়েড অস্টিন সিওলে ছিলেন। ব্লিংকেন বারবার চীনকে অনুরোধ করছিলেন, উত্তর কোরিয়া যাতে পরমাণু অস্ত্র না বানায় তারা যেন সেটা নিশ্চিত করে।

যুক্তরাষ্ট্র এখন উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে পরমাণু বিষয়ে আলোচনা শুরু করতে চায়। পিয়ংইয়ং বলছে, অ্যামেরিকা যদি তাদের প্রতি শত্রুতার মনোভাব না ছাড়ে, তাহলে তারা এ নিয়ে আলোচনা করতে চায় না। হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে আগে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা করা হবে।

ইভূ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়