শেষ হলো মিলান ফ্যাশন উইক

আগের সংবাদ

বাজারে নতুন : দেশের বাজারে গ্যালাক্সি এ ১২

পরের সংবাদ

আমাজন ফ্রেশ

প্রকাশিত: মার্চ ১৪, ২০২১ , ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মার্চ ১৫, ২০২১ , ৫:৩৮ অপরাহ্ণ

রোজকার কর্মব্যস্ত জীবন যাত্রায় এখন আমাদের অনেকের পক্ষেই রোজ বাজার যাওয়া সম্ভব হয়ে ওঠে না। আবার করোনা ভাইরাসের দাপট অনেকটা কমলেও এখনও অনেক সচেতন মানুষই বাজারের ভিড়-ভাট্টা এড়িয়ে চলছেন। ফলে, নিত্য প্রয়োজন মেটাতে ভরসা সুপারশপ বা অনলাইন শপিং মাধ্যমগুলি। কিন্তু এতো কিছুর ভিড়েও ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম আমাজনের ক্যাশিয়ারবিহীন দোকানের ধারণা চালু করেছে বেশ আগেই। এজন্য দোকানে ঢোকার সময় শুধু স্ক্যান করতে হবে কিউআর কোড। এবার সারি সারি তাক থেকে যা দরকার সব তুলে নিতে পারবেন ক্রেতা। এমন দোকানগুলোকে তার নাম দিয়েছেন আমাজন ফ্রেশ। আমাজন ফ্রেশ মূলত মুদির দোকান। সুপরিচিত ব্র্যান্ডের প্রায় ১০ হাজার ধরনের পণ্য থাকবে সেখানে। তা ছাড়া আমাজনে অনলাইনে অর্ডার দেওয়া পণ্যগুলো সংগ্রহ এবং প্রয়োজনে ফেরত দেয়ার কাজটি করা যাবে দোকানটিতে।

আমাজন ফ্রেশে প্রবেশ করতে হলে আমাজনে অ্যাকাউন্ট থাকতে হবে, হতে হবে প্রাইমের গ্রাহক। প্রবেশমুখে স্মার্টফোনে কুইক রেসপন্স বা কিউআর কোড স্ক্যান করার সময় আমাজন বুঝবে কোন গ্রাহক প্রবেশ করল। আর তাক থেকে পণ্য তুলে নিলে মোশন সেন্সর, ক্যামেরা এবং অন্যান্য প্রযুক্তির সাহায্যে বুঝে যাবে কে কোন পণ্য কিনল। দোকান থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় গ্রাহকের প্রাইম অ্যাকাউন্টের সঙ্গে যুক্ত ব্যাংক কার্ড বা অ্যাকাউন্ট থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে অর্থ কেটে নেয়া হবে। যদিও বেশির ভাগ পণ্য অনলাইনেই বিক্রি করে আমাজন তবে, আমাজন ফ্রেশে মানুষের সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন নেই ঠিক, তবে কিছু কর্মী সেখানে উপস্থিত থাকবেন বলে প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে। দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে এই প্রথম বৃহস্পতিবার থেকে আমাজন ফ্রেশ চালু হয়েছে যুক্তরাজ্যের পশ্চিম লন্ডনে

সূত্র : গার্ডিয়ান

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়