মাদ্রাসায় শিশু শিক্ষার্থী নির্যাতনের শেষ কোথায়?

আগের সংবাদ

ফ্রিডম ফ্লাইট

পরের সংবাদ

সীমানা নিয়ে বিরোধ, আহত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী-সন্তান

প্রকাশিত: মার্চ ১৩, ২০২১ , ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মার্চ ১৩, ২০২১ , ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

হবিগঞ্জের মাধবপুরে রাস্তার সীমানা নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ও সন্তানকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) দুপুরে উপজেলার আদাঐর ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় জামাল চৌধুরী (৪১) ও জয়নুল আবেদিন চৌধুরী (৪০) কে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধার আব্দুল আওয়াল চৌধুরীর ছেলে জয়নাল আবেদিন চৌধুরী জানান, তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, তার বাবা দেশের জন্য যুদ্ধ করেছে। সুলতানপুর গ্রামের মৃত আব্দুল আহাদ চৌধুরীর ছেলে হাকিম চৌধুরী, মৃত আব্দুল মান্নান চৌধুরীর ছেলে রাসেল চৌধুরী জোর পূর্বক রাস্তা দখল করে ঘর নির্মাণ করতে চাইলে তার ভাই ও মা বাধা দেয়।

এ সময় রাসেল চৌধুরী ও হাকিমের লোকজন তার ভাই জামাল চৌধুরী ও মাকে পিটিয়ে আহত করে।

মুক্তিযোদ্ধার পুত্রবধু কাজী শাহানাজ জানান, হাকিম ও তাদের লোকজন আমাদের ঘরে বাড়িতে এসে মারপিট করে। অনেক মানুষ এসেও তাদের থামাতে পারেনি। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী নুর জাহান চৌধুরী জানান, হাকিম চৌধুরী রাসেল চৌধুরীর লোকজন আমার ছেলেকে মারপিট করে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়।

সুলতানপুর গ্রামের সাবেক মেম্বার সৈয়দ জহিরুল ইসলাম জানান, সংঘর্ষের ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। গ্রামের লোকজন নিয়ে বিষয়টি সমাধান করা হবে।

ইউপি সদস্য আবু মিয়া জানান, ঘটনাটি শুনে স্থানীয় চেয়ারম্যান কে নিয়ে পরিদর্শন করতে এসেছেন।

আব্দুল হাকিম চৌধুরী জানান, তার জায়গায় সে কাজ করছিল। মুক্তিযোদ্ধার ছেলে ও স্ত্রী এসে বাধা দেয়। এ নিয়ে সংঘর্ষ হয়।

মনতলা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই সাইদুর রহমান জানান ,খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। রাস্তার সীমানা নিয়ে ঘটনাটি ঘটেছে।

মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) আব্দুর রাজ্জাক জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। তবে কেউ অভিযোগ করেনি।

এসআর

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়