সরগরম মঞ্চপাড়া

আগের সংবাদ

প্রিয়াঙ্কা-নিকের মাথায় নতুন পালক

পরের সংবাদ

নায়িকা দীঘির অভিষেক

প্রকাশিত: মার্চ ১৩, ২০২১ , ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মার্চ ১৩, ২০২১ , ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ

রাজধানী ঢাকার দেয়াল মানেই বর্ণাঢ্য পোস্টারের সমারোহ। কয়েকদিন ধরে চলতি পথে দেয়ালে চোখ রাখলেই, চোখে পড়ছে রঙিন সব পোস্টারের ভিড়ে ভিন্ন একটি পোস্টার। সেখানে লেখা, ‘আমি আপনাদের সেই ছোট্ট দীঘি/কি? মনে পড়েছে?/নো প্রবলেম মনে করিয়ে দিচ্ছি/ময়না পাখির ডাক/চাচ্চু/দাদিমা/১ টাকার বউ/৫ টাকার প্রেম/জী…হা/আমি সেই ছোট্ট দীঘি এখন নায়িকা হয়ে সিনেমার পর্দায় আসছি/আগামী ১২ মার্চ নায়িকা হিসেবে আমার প্রথম ছবি মুক্তি পাবে’ কিংবা তারই পাশে রোমান্টিক দৃশ্যের আরো একটি পোস্টার। দুটি পোস্টারই একই সিনেমার। চিত্রনায়িকা হিসেবে দীঘির প্রথম অভিনীত ‘তুমি আছো তুমি নেই’ সিনেমার পোস্টার। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন দেলোয়ার জাহান ঝন্টু। এতে দীঘির বিপরীতে অভিনয় করেছেন আসিফ ইমরোজ। অবশেষে এলো সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। গতকাল দেশের ২৫টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পায় সিনেমাটি। আর শিশুশিল্পীর তকমা ভেঙে চিত্রনায়িকা হিসেবে অভিষিক্ত হন দীঘি। প্রথম সিনেমা মুক্তি পাওয়ার দিনে কেমন লাগছে তার? এ অনুভূতি জানতে দীঘিকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন ‘আমার হার্টবিট বেড়ে যাচ্ছে, ভয় ভয় লাগছে। একেবারে অন্য রকম এক অনুভূতি।’ এদিকে গতকাল দীঘির শুটিংয়ের শিডিউল ছিল। তবে যতো ব্যস্ততায় থাকুক, নিজের প্রথম ছবি মুক্তি বলে কথা! এমন একটি দিনে প্রেক্ষাগৃহে ছুটে যাবেন না এ অভিনেত্রী তা কি হয়! তাই সন্ধ্যার পর পরিচালকের কাছ থেকে কয়েক ঘণ্টা ছুটি নিয়ে প্রেক্ষাগৃহে ছুটে যান দীঘি। দর্শকদের সঙ্গে বেশকিছু প্রেক্ষাগৃহে উপভোগ করেন ‘তুমি আছো তুমি নেই’ ছবিটি। অন্যদিকে আরেকটি বিষয় প্রসঙ্গত। সিনেমাটির ট্রেলার প্রকাশ পেলে দর্শকমহলে তা নিয়ে শুরু হয় তুমুল সমালোচনা। অপ্রীতিকর পরিস্থিতির মুখে পড়েন চিত্রনায়িকা দীঘিসহ সিনেমা সংশ্লিষ্টরা। অনেকেই এই দায় চাপিয়েছেন দীঘির ওপর। কিন্তু এ পরিস্থিতির জবাবে দীঘি বলেন, ‘আমি ট্রেলার বানাইনি। এডিট করিনি, কালার কারেকশন করিনি। আমাকে কেন গান পয়েন্টে রাখা হবে! আমার কাজ পরিচালকের কথামতো অভিনয় করা। আমি সেটা করেছি। ট্রেলার ভালো না হওয়া আমার দোষ নয়। আমি এ রকম প্রতিক্রিয়া পাব ভাবিনি।’ এক সাক্ষাৎকারে ‘ট্রেলার ভালো হয়নি’ বলেও প্রযোজক-পরিচালকের রোষানলে পড়েছেন দীঘি। এমনকি ছবিটির প্রযোজক সিমি ইসলাম কলি অভিনেত্রী দীঘি ও তার বাবাসহ তিনজনের বিরুদ্ধে ১ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ মামলা করেছেন বলেও শোনা গিয়েছে। প্রথম ছবির মুক্তি নিয়ে এ রকম অস্বস্তিকর পরিস্থিতি সম্পর্কে দীঘির ভাষ্য, ‘একে একটা শিক্ষা হিসেবে দেখছি। জীবনে তো উত্থান-পতন থাকেই। একেও আমি ইতিবাচকভাবে নিয়েছি। ভবিষ্যতে এসব বিষয়ে কথা বলার সময় আরো সাবধান থাকব। মামলা-মোকদ্দমা, বিতর্ক বিষয়গুলোকে ইতিবাচকভাবে দেখলেও খারাপ লাগছে। ভাবিনি এ রকম হবে। তবে আমি আত্মবিশ্বাস হারাচ্ছি না।’
দীঘি এবং আসিফ ছাড়াও ‘তুমি আছো তুমি নেই’-এর বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুব্রত চক্রবর্তী, অমিত হাসান, আমির সিরাজী ও শবনম পারভীন প্রমুখ। আর দীঘির হাতে বর্তমানে রয়েছে আরো তিনটি সিনেমা। সেন্সর ছাড়পত্রের অপেক্ষায় আছে ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ এবং শুটিং চলছে ‘শেষ চিঠি’ ও ‘বঙ্গবন্ধু’ ছবি দুটির।

:: মেলা প্রতিবেদক

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়