বিএনপি আবার সরকার পতনের আন্দোলনে?

আগের সংবাদ

বসুরহাটে চলছে ১৪৪ ধারা, আটক ২৭

পরের সংবাদ

বাস থেকে প্রতিবন্ধী নারীকে ধাক্কা

অপরাধীর শাস্তি দেখতে চাই

প্রকাশিত: মার্চ ১০, ২০২১ , ১২:৪১ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মার্চ ১৫, ২০২১ , ৯:২২ অপরাহ্ণ

ঢাকার কেরানীগঞ্জে ভাড়া দিতে না পারায় চলন্ত বাস থেকে বাকপ্রতিবন্ধী নারী যাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ার ঘটনা সত্যিই মর্মান্তিক। ভাড়ার জন্য বাস থেকে যাত্রী ফেলে দেয়ার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। এমনকি ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ার ফলে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটেছে। জানা গেছে, রোববার বিকেলে কেরানীগঞ্জের রোহিতপুর এলাকায় বাস থেকে ওই নারীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ার ঘটনা ঘটেছিল। এ নিয়ে প্রত্যক্ষদর্শী এক ব্যক্তির করা একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়লে তা গণমাধ্যমে উঠে আসে। ভিডিওতে দেখা যায়, নীল গেঞ্জি পরিহিত এক ব্যক্তি বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ওই নারীকে ফেলে দেয়ার পর তিনি কাতরাচ্ছেন। ওই ভিডিওতে বাসটির নম্বরও বেশ পরিষ্কারভাবেই দেখা গেছে। পরে একটি টাইলসের ওপর লিখে বাকপ্রতিবন্ধী ওই নারী জানান যে, ভাড়া না দিতে পারায় তার সঙ্গে এমন আচরণ করা হয়েছে। এর আগে ২০১৮ সালের ২৭ আগস্ট চট্টগ্রাম মহানগরের প্রবেশমুখ সিটি গেটের পাশে গøাক্সো কার্যালয়ের সামনে রেজাউল করিম নামের এক যাত্রীকে বাস থেকে ফেলে হত্যা করা হয়েছিল। এ ঘটনার তিন মাস আগে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া এলাকায় সাইদুল রহমান নামের এক যুবককে বাস থেকে নদীতে ফেলে হত্যা করেছিলেন পরিবহনকর্মীরা। তিনি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির বিবিএর শিক্ষার্থী ছিলেন। দুর্ভাগ্যের বিষয়, এর কোনোটিরই বিচার হয়নি। আসামিরা ধরা পড়লেও আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে বেরিয়ে গেছেন। বাকপ্রতিবন্ধী নারী যাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ার ঘটনায় ‘এন মল্লিক’ পরিবহনের চালক ও হেলপারকে গ্রেপ্তার করেছে র?্যাব-১০। এই ঘটনার অপরাধীদের শাস্তি দেখতে চাই। একজন যাত্রীকে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে সড়কে ফেলে দিলে এর পরিণতি কী হতে পারে এবং এ অপরাধের শাস্তি কী, এটা সংশ্লিষ্ট পরিবহন শ্রমিকের অজানা থাকার কথা নয়। সড়ক ব্যবস্থাপনার চিত্র এককথায় ভয়াবহ। একদিকে যাত্রীদের কাছ থেকে গলাকাটা ভাড়া আদায় করা হচ্ছে, অন্যদিকে অদক্ষ চালকের হাতে গাড়ি চালানোর ভার দিয়ে অসংখ্য মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে। সড়ক শৃঙ্খলা রোধে দেশে আইন আছে, রয়েছে শাস্তির বিধান। কিন্তু এই আইনের প্রয়োগ সন্তোষজনক নয়। সড়ক দুর্ঘটনার দায়ে অভিযুক্ত চালকদের সাজা ভোগের নজিরও দেখা যায় না। সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা কঠিন কোনো বিষয় নয়। এজন্য দরকার ইতিবাচক চিন্তা ও সমন্বিত পদক্ষেপ। সড়কপথে শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠিত হলে দুর্ঘটনার হার অনেক কমে আসবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই। এজন্য পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের পাশাপাশি যাত্রীদের সচেতন হতে হবে এবং আইনের যথাযথ প্রয়োগও নিশ্চিত করতে হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়