দাউদকান্দিতে পরকীয়ার জেরে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

আগের সংবাদ

মার্চেই সমাহিত পেয়ারা পাকিস্তান

পরের সংবাদ

এইচ টি ইমামের প্রয়াণ

প্রকাশিত: মার্চ ৬, ২০২১ , ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: মার্চ ৬, ২০২১ , ১২:১৪ পূর্বাহ্ণ

চলে গেলেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এইচ টি ইমাম। তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আমরাও তার আত্মার শান্তি কামনা করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। বুধবার রাত সোয়া ১টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তিনি মারা যান। ফুসফুস, কিডনি, হৃদরোগসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন জটিলতা নিয়ে তিনি সিএমএইচে চিকিৎসাধীন ছিলেন। ১৯৩৯ সালের ১৫ জানুয়ারি টাঙ্গাইল শহরে জন্মগ্রহণ করেন এইচ টি ইমাম। তার বাবা তাফসির উদ্দীন আহমেদ বিএ, বিএল ও মা তাহসিন খাতুন। বাবার চাকরি সূত্রে শৈশবে তিনি রাজশাহীতে বড় হন। সেখানেই প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন করেন। পরে লেখাপড়া করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া ও কলকাতায়। ১৯৫২ সালে ম্যাট্রিক পাস করেছেন ঢাকা কলেজিয়েট হাইস্কুল থেকে। ১৯৫৬ সালে রাজশাহী কলেজ থেকে অর্থনীতিতে অনার্সসহ বিএ ডিগ্রি অর্জন করেন। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ভর্তি হন। সেখানে পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়নের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন। ১৯৫৮ সালে ঢাবি থেকে অর্থনীতিতে এমএ পাস করেন। পাকিস্তান আমলে একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে নিজের কর্মজীবন শুরু করেছিলেন। ১৯৭১ সালে পাকিস্তান সরকারের চাকরিতে থাকা অবস্থায় পাকিস্তানের প্রতি আনুগত্য ত্যাগ করে মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়েছিলেন। স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম মন্ত্রিপরিষদ সচিবও হন তিনি। দেশের বিভিন্ন এলাকায় মাঠ প্রশাসনের নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। নিজের মেধা, দক্ষতা দিয়ে ঊর্ধ্বতনদের প্রিয়ভাজন হয়ে ওঠেন। রাজনৈতিক মহলে ধারণা করা হয়, ২০১৪ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনতে এইচ টি ইমামের নানা কৌশল অনেক বেশি কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়। এ কারণেই তিনি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আরো বেশি আস্থাভাজন হয়ে ওঠেন। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে এইচ টি ইমাম আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। এইচ টি ইমাম মূলত একজন ডাকসাইটে আমলা হলেও রাজনীতিমনস্ক ছিলেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, অসাম্প্রদায়িক চেতনার একজন মানুষ ছিলেন। তার কর্ম ও সাধনা আমাদের নিত্যপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। তার দেখানো পথ ধরে আওয়ামী লীগ এগিয়ে যাবে, বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতির অগ্রযাত্রা ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশের অভিযাত্রায় ইতিহাসের ধ্রুবতারা হয়ে বেঁচে থাকবেন এইচ টি ইমাম। তার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়