রাজধানীর প্রতি ওয়ার্ডে খেলার মাঠ করা হবে: তাপস

আগের সংবাদ

"অপরাজিতা" পুরষ্কার পেলেন জাবির উপাচার্য

পরের সংবাদ

দশ উইকেটে জিতল ভারত লিজেন্ডস

প্রকাশিত: মার্চ ৫, ২০২১ , ১০:২৮ অপরাহ্ণ আপডেট: মার্চ ৫, ২০২১ , ১০:৩১ অপরাহ্ণ

রোড সেফটি টুর্নামেন্ট ২০২১ এর প্রথম ম্যাচে আজ শুক্রবার বাংলাদেশ লিডেন্ডসকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে ভারত লিজেন্ডস। পাইলট-রফিকদের ১০৯ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শচিন টেন্ডুলকার এবং বীরেন্দ্র শেবাগের ঝড় ব্যাটিংয়ে ১০.১ ওভারে কোনো উইকেট না হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ভারত। বয়স হলেও ব্যাট হাতে বীরেন্দ্র শেবাগের ধার কমেনি। মাত্র ৩৫ বলে ১০ চার এবং ৫ ছক্কার সাহায্যে ৮০ রান এবং অপর প্রান্তে শচিন টেন্ডুলকার ২৬ বল মোকাবেলা করে ৫ চারের সাহায্যে ৩৩ রানের অপরাজিত ছিলেন। বাংলাদেশ লিডেন্ডসের কোনো বোলার নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেনি।
সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরির উদ্দেশ্যে এই টুর্নামেন্টটি আয়োজন করছে ভারত। বাংলাদেশ ছাড়াও শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে। সব দেশের নামি দামী ও জনপ্রিয় ক্রিকেটাররা এই টুর্নামেন্টে খেলছেন।

তবে প্রতিযোগিতাটিতে বাংলাদেশের খেলার কথা ছিল না । অস্ট্রেলিয়া লিজেন্ডস তাদের নাম প্রত্যাহার করে নিলে বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডকে আমন্ত্রণ জানায় ভারত। টস জিতে ইন্ডিয়া লিজেন্ডসের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভালো শুরু করেও সুবিধা করতে পারেনি বাংলাদেশ লিডেন্ডস। তারা ১৯ ওভার ৪ বল খেলে ভারতকে মাত্র ১১০ টার্গেট দেয়।

বাংলাদেশ ৮ ওভার ৩ বল থেকে শুরু করে ১৬ ওভার ৫ বল পর্যন্ত একটি বাউন্ডারিও হাঁকাতে পারেনি। কিন্তু ম্যাচের শুরুতে ভালোই করেছিল বাংলাদেশ। দুই ওপেনার মোহাম্মদ নাজিমউদ্দিন ও জাবেদ ওমর মিলে উদ্বোধনী জুটিতে ৮ ওভার খেলে ৫৯ রান এনে দেন। জাবেদ ১৯ বল খেলে ১২ রান করে প্রজ্ঞান ওঝার বলে স্ট্যাম্পিং আউট হন। আর এরপরই ভারতীয় বোলাররা জ্বলে উঠেন। দলের রানের খাতায় ৯ রান যোগ হওয়ার পর সর্বোচ্চ ৪৯ রান করে যুবরাজের বলে বোল্ড আউট হন নাজিমউদ্দিন। এরপর ব্যাট করতে নামা মোহাম্মদ রফিক ও নাফিস ইকবাল কেউ সুবিধা করতে পারেননি। রফিক ৩ বলে ১ করে ইউসুফ পাঠানের বলে ক্যাচ আউট ও নাফিস ১০ বলে ৭ রান করে ওঝার বলে আউট হন। কিন্তু এই সময় একপ্রান্ত আগলে রাখেন রাজিন সালেহ। তবে তিনি ব্যাট করছিলেন খুবই ধীরগতিতে। ফলে উইকেট আগলে রাখলেও রান বাড়ছিল না। শেষ পর্যন্ত তিনি ২৪ বল খেলে ১২ রান করে বিনয় কুমারের বলে বোল্ড আউট হন।

রাজিন সালেহর পর ব্যাট করতে নেমে হান্নান সরকার ৬ বলে ৩ রান করে যুবরাজের বলে বোল্ড আউট, আব্দুর রাজ্জাক ২ বলে ২ রান করে রান আউট ও মোহাম্মদ শরীফ মানপ্রিত গনির বলে বড় শট হাকাতে গিয়ে বাউন্ডারির কাছে মুনাফ প্যাটেলের হাতে ধরা পরেন। তিনি ৮ বল খেলে ৫ রান করেন।

এসএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়